আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করল এডুটিউববিডি

বৃহস্পতিবার, ৩১ মার্চ ২০১৬

শিামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি গত মঙ্গলবার রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে বাংলাদেশের সর্বপ্রথম শিাবিষয়ক কনটেন্ট শেয়ারিং পোর্টাল বফঁঃঁনবনফ.পড়স-এর উদ্বোধন করেছেন। বাংলাদেশের ছাত্রছাত্রীদের কথা মাথায় রেখে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এথিক্স অ্যাডভান্সড টেকনোলজি লিঃ (ইএটিএল) এই পোর্টালটির উন্নয়ন করেছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি ও এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক মিসেস নীলুফার আহমেদ এবং বাংলাদেশ জাতীয় শিাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের চেয়ারম্যান (দায়িত্বপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. ইনামুল হক সিদ্দিকী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইএটিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও চেয়ারম্যান এমএ মুবিন খান।

সম্প্রতি শিার্থীদের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয় এক প্রতিষ্ঠানের নাম এথিক্স অ্যাডভান্সড টেকনোলজি লিমিটেড (ইএটিএল/ঊঅঞখ)। ইএটিএল মোবাইল অ্যাপস ও ডিজিটাল কনটেন্ট উন্নয়নের ওপর কয়েক বছর ধরে নানারকম কাজ ও গবেষণা করেছে। এর ফলে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো দেশের একমাত্র শিাবিষয়ক কন্টেন্ট শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম বফঁঃঁনবনফ.পড়স শুরু করেছে। এই পোর্টালের মাধ্যমে দেশের যে কোনো পর্যায়ের শিার্থী তার যাবতীয় শিাবিষয়ক নোট, উপকরণ, লেকচার ইত্যাদি যে কোনো ফরমেটে আপলোড এবং শেয়ার করতে পারবে।

জ্ঞান ছড়িয়ে দেয়ার মাধ্যমেই আরো শক্তিশালী হয়ে উঠে-মূলমন্ত্রটি সবার মাঝে প্রচার করার উদ্দেশ্য নিয়েই ইএটিএল এই কার্যক্রম শুরু করেছে। বাংলাদেশে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই শহরাঞ্চলের সচ্ছল পরিবারের ছেলেমেয়েরাই ভালোমানের শিা উপকরণ পেয়ে থাকে, যা তাদের জ্ঞান ও প্রতিভাকে আরো উন্নত ও বিকশিত করে। শহরাঞ্চলে বর্তমানে মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক বা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা কাসে উপস্থিত হয়ে লেকচার নেয় অথবা তারা গৃহশিকের থেকে নোট পায় এবং কখনো কখনো তারা ইমেল বা ফ্যাশ ড্রাইভের মাধ্যমে এগুলো অন্য শিার্থীদের সঙ্গে শেয়ার করে। বই খাতা কাস লেকচার নোট আদান প্রদান হয় শুধু মাত্র শিার্থীদের ঘনিষ্ঠদের মধ্যে এবং নতুন শ্রেণীতে ওঠার আগ পর্যন্ত এটি চলতে থাকে। যদি শিার্থীরা এই উপকরণগুলো অন্যদের সঙ্গে শেয়ার করে, যারা প্রাইভেট টিউটরের কাছে পড়ার সুযোগ থেকে বঞ্চিত অথবা একটা টেস্ট পেপার কেনার সামর্থ্য যাদের নেই তারা দরকারি ম্যাটেরিয়ালগুলো এক কিকে এখান থেকে পেয়ে যাবে।

িি.িবফঁঃঁনবনফ.পড়স পোর্টালে যে কেউ অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন বা বিনামূল্যে সাবস্ক্রাইব করতে পারেন। পরবর্তীতে যে কোনো ছাত্র, শিক বা অভিভাবকরা তাদের শিা উপকরণ আপলোড করতে লগইন করতে পারেন এবং যে কোনো কনটেন্ট ডাউনলোড করতে পারেন। শিাবিষয়ক অন্য পোর্টালগুলো মাইক্রো-লেকচারগুলো ইউটিউব ভিডিও আকারে প্রকাশ করে, কিন্তু বফঁঃঁনবনফ-তে মাইক্রো-লেকচারের পাশাপাশি শিার্থীদের জন্য অনেক অনুশীলনী ও টুলস্ থাকবে। শিকদের জন্য আলাদা নেটওয়ার্ক থাকবে যেখানে তারা চাইলেই তাদের লেকচার আপলোড করতে পারবেন এবং শিার্থীরা অনলাইনের মাধ্যমেই শিখতে পারবে। পোর্টালে কন্টেন্ট যাচাই-বাছাই করে ওয়েবসাইটে আপ করা হবে যা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে লাইভ দেখা যাবে। কোন নতুন শিার্থী তার পছন্দমতো কন্টেন্ট সার্চ বার দিয়ে খুঁজে নিতে পারে।

শিামন্ত্রী তার বক্তব্যে বলেন বফঁঃঁনব-এর মতো উদ্যোগ বাংলাদেশকে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ ল্েয এগিয়ে নিয়ে যাবে এবং এই উদ্যোগ শহর ও গ্রামাঞ্চলের মধ্যে শিা সুবিধাপ্রাপ্তির বিভেদ কমাতে সাহায্য করবে। তিনি জানান তার মন্ত্রণালয় মাধ্যমিক ছাত্রছাত্রীদের জন্য ডিজিটাল কনটেন্ট তৈরি করার উদ্যোগ নিয়েছে। তিনি বফঁঃঁনব-এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকলকে অভিনন্দন জানান। প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ তার মন্ত্রণালয় কর্তৃক গৃহীত বিভিন্ন প্রকল্পের কথা এবং সম্প্রতি প্রাথমিক শিার্থীদের জন্য ডিজিটাল কনটেন্ট তৈরির কথা জানান। তিনি বফঁঃঁনব-এর সাফল্যের জন্য সহযোগিতার প্রতিশ্রæতি দেন। অনুষ্ঠানের সভাপতি এমএ মুবিন খান উপস্থিত সবাইকে বফঁঃঁনবনব-তে কনটেন্ট আপলোড করতে আহ্বান জানান। অভ্যাগত অতিথি ও মিডিয়াকর্মীদের ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি সভা শেষ করেন।

:: ক্যাম্পাস ডেস্ক

ক্যাম্পাস'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj