জঙ্গি দমনে দুদিনের আঞ্চলিক সম্মেলন অস্ট্রেলিয়ায়

শনিবার, ১৩ জুন ২০১৫

কাগজ ডেস্ক : অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী টনি অ্যাবট জিহাদিদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সহযোগিতার জন্য এশীয় প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। এ বিষয়ে একটি আঞ্চলিক শীর্ষ সম্মেলন উদ্বোধনকালে গত বৃহস্পতিবার তিনি এ আহ্বান জানান।

একই সঙ্গে তিনি সতর্ক করেন, কেবল স্থানীয়ভাবে নয় জিহাদি গ্রুপ ইসলামিক স্টেটের লক্ষ্য বিশ্বব্যাপী তাদের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করা।

অস্ট্রেলিয়ায় শুরু হওয়া দুদিনব্যাপী এ সম্মেলনে ৩০টি দেশের মন্ত্রী ও প্রতিনিধি এবং যোগাযোগ সাইট ফেসবুক, টুইটার ও গুগলের প্রতিনিধিরা অংশ নেন। সম্মেলনে অ্যাবট বলেন, চরমপন্থীদের মতাদর্শ মোকাবেলায় কৌশল খুঁজে বের করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তিনি ইরাক ও সিরিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ইসলামিক স্টেট গ্রুপের প্রসঙ্গ টেনে বলেন, এ ধরনের চরমপন্থী গ্রুপগুলোর সঙ্গে আলোচনা হতে পারে না। এদের বিরুদ্ধে কেবল লড়াই চালাতে হবে। তিনি বলেন, কেবল স্থানীয়ভাবে নয় জিহাদি গ্রুপ ইসলামিক স্টেটের লক্ষ্য বিশ্বব্যাপী তাদের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করা।

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ইরাকি বাহনীকে প্রশিক্ষিত করতে সেখানে অতিরিক্ত সাড়ে ৪০০ সৈন্য মোতায়েনের অনুমোদন দেয়ার প্রেক্ষাপটে অস্ট্রেলিয়া এ সম্মেলনের আয়োজন করল।

ওয়াশিংটন এর আগে ফেব্রুয়ারিতে এ ধরনের সম্মেলনের আয়োজন করে। সেখানে ওবামা বলেছিলেন, বিশ্বকে আইএসের মতো গ্রুপগুলোতে লোকজনের যোগদানের মূল কারণগুলো মোকাবেলা করতে হবে।

কিন্তু তেমন কোনো পদক্ষেপের ঘোষণা ছাড়াই তিন দিনের ওই বৈঠক শেষ হয়েছিল। সিডনিতে অনুষ্ঠিত এ সম্মেলনে যেসব বিষয়ে আলোচনা হবে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য সন্ত্রাসীদের দমনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, ব্যবসায়ী ও সুশীল সমাজের সঙ্গে কাজ করা, সন্ত্রাসীদের প্রচার প্রচারণা নিয়ন্ত্রণ এবং যে কোনো পদক্ষেপে নারী ও পরিবারকে সম্পৃক্তকরণ।

দূরের জানালা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj