ইন্টারভিউয়ের ভালো আর খারাপ

রবিবার, ২২ মার্চ ২০১৫

চাকরির ইন্টারভিউয়ে নিজেকে যোগ্য প্রমাণ করাটা বেশ কষ্টসাধ্য ব্যাপার। সময়মতো উপস্থিত হওয়া, কথা বলার পারদর্শিতা, বুদ্ধিমত্তা প্রদর্শন করা ইত্যাদি মূল চাবিকাঠি হওয়ার পরও কিছু বিষয়ে রয়েছে যা প্রভাবশালী।

ইন্টারভিউয়ের শুরুতে প্রথম প্রার্থী হওয়াটা বেশ ঝামেলার বিষয়। এটা আপনার জন্যে ভালো সংবাদ নয়। সকালে প্রশ্নকর্তা এমনিতেই ইন্টারভিউ গ্রহণের জন্যে কিছু প্রস্তুতি নেন। ধীরে ধীরে সজাগ হয়ে ওঠে। তা ছাড়া প্রথম প্রার্থী হিসেবে আপনাকে শুরুতেই আগের দিনের কোনো প্রার্থীর সঙ্গে তুলনা করে বিচার করার প্রবণতা কাজ করবে। প্রথমে যিনি আসবেন তার মাধ্যমেই যোগ্যতার একটা সীমারেখা সম্পর্কে ধারণা করে নেবেন কর্তৃপক্ষ। এতে প্রভাব খুব কম মনে হলেও মনস্তাত্তি¡ক দিক থেকে তা গুরুত্ব রাখে।

প্রথম প্রার্থী হওয়া ভালো নয়, তার মানে এই নয় যে শেষেরজন সবচেয়ে বেশি সুবিধা পাবেন। তারও নানা সমস্যা রয়েছে। একের পর এক প্রার্থীর যোগ্যতার বিচারে নানা সিদ্ধান্তহীনতা শুরু হবে। কিছুটা ক্লান্তও হয়ে পড়বেন প্রশ্নকর্তারা। আর এসবের ফলস্বরূপ বিরক্তির পুরোটা আপনার ওপর পড়তে পারে যদি শেষেরজন হয়ে থাকেন। আমেরিকার ন্যাশনাল অ্যাকাডেমিক সায়েন্স এর এক গবেষণায় বলা হয়, ইন্টারভিউয়ের শেষের দিকের প্রার্থীদের যাচাই করতে কিছুটা নিরুৎসাহিত থাকেন প্রশ্নকর্তারা। প্রথম থেকে সূ² চিন্তাধারা কিছুটা ভোঁতা হয়ে আসে।

ফ্যাশন (ট্যাবলয়েড)'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj