কেবলই তোমাকে পাই

শনিবার, ২১ মার্চ ২০১৫

চাষী নজরুল ইসলাম আমাদের কাছ থেকে বিদায় নিয়েছেন গত জানুয়ারি মাসে। কিন্তু এদেশের মানুষের কাছে চির সবুজ হয়েই থাকবেন তিনি। মুক্তিযুদ্ধ এমনকি মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক চলচ্চিত্রের প্রসঙ্গ এলে তার নামটিই উচ্চারিত হবে সবার আগে। এভাবেই তিনি বার বারই ফিরে আসবেন আমাদের কাছে। প্রয়াত পরিচালক ফতেহ লোহানীর সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করার মধ্য দিয়ে ১৯৬২ সালে চাষী নজরুল ইসলাম চলচ্চিত্রের সঙ্গে সম্পৃক্ত হন। ১৯৬৩ সালে তিনি কাজ করেন সাংবাদিক ও চলচ্চিত্র নির্মাতা ওবায়দুল হকের সঙ্গে। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে অর্ধশত চলচ্চিত্র নির্মিত হয়েছে, তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ৬টি চাষী নজরুলের নির্মিত। তার সেইসব চলচ্চিত্র নিয়েই সাজানো হলো বিশেষ এই প্রতিবেদনটিওরা ১১ জন : ১৯৭২ সালের ১১ আগস্ট মুক্তি পায় স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র ‘ওরা ১১ জন’। এটি ছিল পরিচালক হিসেবে চাষী নজরুল ইসলামের অভিষেক চলচ্চিত্র। জাগ্রত কথাচিত্রের ব্যানারে মাসুদ পারভেজ প্রযোজিত চলচ্চিত্রটির পরিবেশনায় ছিল স্টার ফিল্মস ডিসট্রিবিউটার্স (ইফতেখারুল আলম ও শের আলী রামজী)। আল মাসুদের কাহিনী থেকে ছবিটির চিত্রনাট্য লিখেছেন কাজী আজিজ। সুর ও সঙ্গীত পরিচালনা করেন খোন্দকার নুরুল আলম। অভিনয় করেছেন খসরু, রাজ্জাক, শাবানা, নূতন, হাসান ইমাম, এ টি এম শামসুজ্জামান, সুমিতা দেবী, রওশন জামিল, খলিল, রাজু আহমেদ, মিরানা জামান প্রমুখ।

সংগ্রাম : ১৯৭৪ সালে চাষী নজরুল ইসলাম নির্মাণ করেন মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক আরো একটি চলচ্চিত্র। মেজর খালেদ মোশাররফের জীবনের ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত এই চলচ্চিত্রটির নাম ‘সংগ্রাম’। অভিনয় করেন খসরু, সুচন্দা, হাসান ইমাম, নূতন ও দারাশিকো। চিত্রনাট্য কাজী আজিজ আহমেদ ও সঙ্গীত খোন্দকার নুরুল আলম।

হাঙর নদী গ্রেনেড : ১৯৯৫ সালে নির্মিত হয় মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র ‘হাঙর নদী গ্রেনেড’। সেলিনা হোসেনের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত এ চলচ্চিত্রে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন সোহেল রানা, সুচরিতা, অরুনা বিশ্বাস, অন্তরা, ইমরান, দোদুল ও আশিক। এর আগে হাঙর নদী গ্রেনেড উপন্যাস অবলম্বনে ভারতীয় নির্মাতা সত্যজিৎ রায় চলচ্চিত্র করতে চেয়েছিলেন। চলচ্চিত্রটির জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন চাষী নজরুল।

পদ্মা মেঘনা যমুনা : চাষী নজরুল ইসলাম মুক্তিযুদ্ধের আবহে নির্মাণ করেন আরেকটি চলচ্চিত্র ‘পদ্মা মেঘনা যমুনা’। এই চলচ্চিত্রটি ১৯৯০ সালে বেশ কয়েকটি ক্যাটাগরিতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করে।

মেঘের পরে মেঘ : ২০০৪ সালে মুক্তি পায় ‘মেঘের পরে মেঘ’। চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করেছেন ইমপ্রেস টেলিফিল্ম। কথাসাহিত্যিক রাবেয়া খাতুনের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক এই চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন রিয়াজ, পূর্ণিমা, মাহফুজ আহমেদ, সাচ্চুসহ আরো অনেকে। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ ও যুদ্ধ-উত্তর সময়ের পটভূমিকায় দেশপ্রেম, ভালোবাসা ও ত্যাগ স্থান পেয়েছে এ চলচ্চিত্রে।

ধ্রæবতারা : ২০০৬ সালে মুক্তি পায় ‘ধ্রæবতারা’। রাবেয়া খাতুনের উপন্যাস অবলম্বনে এই ছবিটি প্রযোজনা করেছে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম। অভিনয় করেছেন মৌসুমী, ফেরদৌস, হেলাল খানসহ আরো অনেকে।

:: মেলা প্রতিবেদক

মেলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj