রিভকিন-পররাষ্ট্র সচিব বৈঠক : জিএসপি পুনর্মূল্যায়ন ডিসেম্বরের মধ্যে

শুক্রবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৪

কাগজ প্রতিবেদক : যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে বাংলাদেশী পণ্যের অগ্রাধিকারমূলক প্রবেশাধিকার বা জিএসপি সুবিধা ডিসেম্বরের মধ্যে পর্যালোচনা (রিভিউ) হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র সচিব মোঃ শহীদুল হক। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার অর্থনৈতিক ও ব্যবসাবিষয়ক মার্কিন সহকারী মন্ত্রী চার্লস এইচ রিভকিনের সঙ্গে বৈঠকের পর তিনি সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

চার্লস রিভকিনের সঙ্গে অনুষ্ঠিত বৈঠক প্রসঙ্গে সচিব বলেন, বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রে মধ্যে অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদারের উপায় নিয়ে আমরা আলোচনা করেছি। আমরা বলেছি, জিএসপি একটি অনেক বড় ইস্যু। এটি রিভিউ হওয়া উচিত। ইতোমধ্যে আমরা প্রয়োজনীয় শর্তপূরণে অনেক দূর অগ্রসর হয়েছি।

এর জবাবে রিভকিন বলেন, এ মাসে বা ডিসেম্বরের মধ্যে জিএসপি নিয়ে বাংলাদেশ কতোটা অগ্রগতি করেছে তা রিভিউ করবে। বাংলাদেশের পোশাক শিল্প খাতে ভালো অগ্রগতি হয়েছি এটি আমরা জেনেছি। শ্রমিক অধিকার ইস্যুতে কাজগুলোও এগিয়ে চলেছে। শর্তগুলোর অগ্রগতির ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র সন্তুষ্ট।

সচিব জানান, গতকাল বাংলাদেশ মার্কিন বাণিজ্য প্রতিনিধির (ইউএসটিআর) দপ্তরে জিএসপিবিষয়ক একটি অগ্রগতি প্রতিবেদন জমা দেয়ার কথা রয়েছে।

বৈঠক শেষে চার্লস রিভকিন সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন, আমি জন কেরির প্রতিনিধি হিসেবে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে এসেছি। পররাষ্ট্র সচিবের সঙ্গে আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে। আমরা অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদার ও গভীর করার ব্যাপারে কথা বলেছি। আশা করি, এ লক্ষ্য বাস্তবায়নে আমরা একসঙ্গে কাজ করবো।

এদিকে গত বুধবার রাতে বাংলাদেশে আসেন মার্কিন এ সহকারী মন্ত্রী। ফ্লাইট জটিলতার কারণে প্রায় ১২ ঘণ্টা বিলম্বের কারণে তার সফরসূচি সংক্ষিপ্ত করা হয়। গতকাল সকালে তিনি ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজিনার বাসভবনে বাংলাদেশ পোশাক শিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ, যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক শ্রমিক সংগঠন সেন্টার ফর ওয়ার্কার্স সলিডারিটি, আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও) এবং পোশাক শিল্প সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে প্রাতঃরাশ বৈঠক করেন। গতকাল দুপুরেই তিনি ভারতের মুম্বাইয়ের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছেন।

প্রথম পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj