চট্টগ্রামে গণজাগরণ মঞ্চের আনন্দ মিছিলে জামাত-শিবিরের বোমা হামলা, আহত ২

সোমবার, ৩ নভেম্বর ২০১৪

চট্টগ্রাম অফিস : চট্টগ্রামের বদর বাহিনীর প্রধান মীর কাসেম আলীর ফাঁসির রায়ের পর আনন্দের মিছিল আতঙ্কে পরিণত হয়। রায় ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে চট্টগ্রাম মহানগরীতে গণজাগরণ মঞ্চ আনন্দের মিছিল বের করলে মিছিলে হাত বোমা (ককটেল) বিস্ফোরণে ঘটনা ঘটে। গতকাল রোববার দুপুরে নগরীর সিনেমা প্যালেসের সামনে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। তবে গণজাগরণ মঞ্চের নেতাকর্মীরা এ ঘটনায় জামাত-শিবিরকে দায়ী করেছে। এ সময় বোমার স্পিøন্টারের আঘাতে রিকশাচালক মোঃ রফিক (২৫) ও স্থানীয় পত্রিকার আলোকচিত্রী আমিনুল ইসলাম মুন্না আহত হন। সঙ্গে সঙ্গে ওই রিকশাচালককে চট্টগ্রাম জেলারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং সাংবাদিক মুন্নাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে কোতোয়ালি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মহিউদ্দিন সেলিম বলেন, রায়ের পর গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরা আনন্দ মিছিল বের করলে মিছিলটি শহীদ মিনারের দিকে যাওয়ার সময় নন্দনকানন টিএন্ডটি অফিস এলাকায় জামাত-শিবিরে কর্মীরা ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে একজন সাংবাদিক ও রিকশাচালক সামান্য আহত হয়েছেন। ঘটনার পরপর ঘটনাস্থলের আশপাশ এলাকায় ব্যাপক তল্লাশি চালানো হয়েছে। তবে কেউ আটক হয়নি বলে তিনি জানান। এদিকে মীর কাসেম আলীর ফাঁসির রায়ের পর নগরীর চেরাগী মোড় থেকে তাৎক্ষণিক আনন্দ মিছিল বের করার কথা উল্লেখ করে চট্টগ্রাম গণজাগরণ মঞ্চের প্রধান সমন্বয়ক শরীফ চৌহান বলেন, মিছিলটি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাওয়ার পথে সিনেমা প্যালেসের সামনে পৌঁছলে মিছিল লক্ষ্য করে ককটেল নিক্ষেপ করা হয়। এর আগে মীর কাসেম আলীকে ফাঁসির রায়ের পর আনন্দ মিছিল ও পরস্পরকে মিষ্টিমুখ করান গণজাগরণ মঞ্চ চট্টগ্রামের নেতাকর্মীরা। গতকাল রোববার সকাল ১১টায় নগরীর চেরাগীর পাহাড়ের মোড়ে আনন্দ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। আনন্দ মিছিল পূর্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তারা বলেন, এ রায়ের মাধ্যমে চট্টগ্রাম কলঙ্কমুক্ত হলো। চট্টগ্রামে আলবদর বাহিনীর কমান্ডার মীর কাশেম আলীর হাতে নির্যাতিত হয়েছিলেন মুক্তিযোদ্ধারা। আজকে তার রায়ের মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধদের আত্মা শান্তি পাবে। আনন্দ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন গণজাগরণ মঞ্চ সমন্বয়ক শরীফ চৌহান, নারী নেত্রী নুরজাহান খান, সংগঠক ডা. চন্দন দাশ, সুনীল ধর, অধ্যাপক আলেক্স আলীম, আবৃত্তি সংগঠন প্রমার সভাপতি রাশেদ হাসান, সংগঠক সুনীল দে, ডা. চন্দন কুমার দাশ, সাংবাদিক স্বরূপ ভট্টচার্য, প্রিতম দাশ, রুবেল দাশ প্রিন্স, জোবায়ের জুয়েল প্রমুখ।

শেষ পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj