টানা জয়ে চেলসি

সোমবার, ২০ অক্টোবর ২০১৪

মৌসুমের শুরু থেকেই ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে দুর্দান্তভাবে এগিয়ে যাওয়া চেলসি জয়ের ধারা ধরে রেখেছে। শনিবার ক্রিস্টাল প্যালেসকে তাদেরই মাঠে ২-১ গোলে হারিয়েছে স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের দলটি। লিগে চেলসির এটা টানা তৃতীয় জয়। আট ম্যাচ শেষে ২২ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে আছে চেলসি। শনিবার দুই অর্ধে একটি করে গোল করে জোসে মরিনহোর শিষ্যরা। ইংলিশ লিগের অন্য ম্যাচে পয়েন্ট হারিয়েছে আর্সেনাল। হাল সিটির সঙ্গে ঘরের মাঠে ২-২ গোলে ড্র করেছে তারা। শনিবার ইংলিশ লিগে সবচেয়ে বড় জয় পায় সাউদাম্পটন। সাদারল্যান্ডের বিপক্ষে তারা ৮-০ গোলে জয় পায়।

প্রতিপক্ষের মাঠে অস্কারের দুর্দান্ত এক ফ্রি কিকে ষষ্ঠ মিনিটেই এগিয়ে যায় চেলসি। ৩০ গজ দূর থেকে রক্ষণ দেয়ালের উপর দিয়ে গোলপোস্টের ডান কোনা দিয়ে বল জালে জড়ান ব্রাজিলের এই মিডফিল্ডার। প্রথমার্ধের নির্ধারিত সময় শেষের পাঁচ মিনিট আগে বড় একটা ধাক্কা খায় চেলসি। স্বাগতিকদের অস্ট্রেলিয়ায় মিডফিল্ডার মাইল জেডিনাককে ফাউল করায় সরাসরি লাল কার্ড দেখেন ডিফেন্ডার সিজার আসপিলিকুয়েতা। অবশ্য তিন মিনিট বাদে ক্রিস্টাল প্যালেসও ১০ জনের দলে পরিণত হয়। দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন আইরিশ ডিফেন্ডার ড্যামিয়েন ডেলানি। দ্বিতীয়ার্ধের ষষ্ঠ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সেস ফ্যাব্রিগাস। প্রথমে এডেন হ্যাজার্ড এবং পরে অস্কারের সঙ্গে বল দেয়া নেয়া করে ডি বক্সের মধ্যে থেকে ডান পায়ের শটে লক্ষভেদ করেন এই মৌসুমেই বার্সেলোনা থেকে চেলসিতে আসা ফ্যাব্রিগাস। নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে ডি বক্সের মধ্যে থেকে ডান পায়ের শটে ব্যবধান কমান ক্রিস্টাল প্যালেসের স্ট্রাইকার ফ্রেইজার ক্যাম্পবেল। স্বদেশী উইলফ্রাইড জাহার পাস থেকে গোলটি করেন ইংল্যান্ডের ক্যাম্পবেল।

শনিবার নিজেদের মাঠ এমিরেটস স্টেডিয়ামে হাল সিটির সঙ্গে কোনোমতে ড্র করে দলটি। নব্বই মিনিট পর্যন্ত ২-১ গোলে এগিয়ে ছিল অতিথিরা। যোগ করা সময়ে ড্যানি ওয়েলব্যাকের গোলে শেষ পর্যন্ত ১ পয়েন্ট নিশ্চিত হয় আর্সেন ওয়েঙ্গারের দলের। ১৩ মিনিটে আর্সেনালকে এগিয়ে নেন আলেক্সিস সানচেস। বার্সেলোনা থেকে চলতি মৌসুমেই আর্সেনালে যোগ দেয়া এই স্ট্রাইকার দুরূহ কোন থেকে হাল সিটির গোলরক্ষক স্টিভ হারপারকে পরাস্ত করেন। সমতা ফেরাতে বেশি সময় নেয়নি হাল সিটি।

১৮ মিনিটে মোহামেদ দিয়ামের গোলে খেলায় ফিরে অতিথিরা। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই হাল সিটিকে এগিয়ে নেন আবেল এর্নান্দেস। পের মেরটেজাকারকে ফাঁকি দিয়ে হার্নান্দেজ আর্সেনালের জালে বল পাঠান। অবশেষে যোগ করা সময়ে স্বাগতিক শিবিরে স্বস্তি ফেরান ওয়েলব্যাক। এতে দারুণ অবদান সানচেসের। কয়েকজনকে ফাঁকি দিয়ে তিনি বল দেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে আসা ওয়েলব্যাককে। তিনি জালে বল জড়াতে ভুল করেননি।

এছাড়া এভারটন ৩-০ গোলে অ্যাস্টন ভিলাকে এবং ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেড ৩-১ গোলে বার্নলিকে হারায়। ইন্টারনেট।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj