বোলিং অ্যাকশনের ফলাফল নিয়ে আত্মবিশ্বাসী সোহাগ

সোমবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৪

ক্রীড়া প্রতিবেদক : আমি আত্মবিশ্বাসী; যেমন পরীক্ষা দিয়েছি তাতে আমার বিশ্বাস যে আমার পক্ষেই ফল আসবে- কথাগুলো বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অফ স্পিনার সোহাগ গাজীর। গত শুক্রবার সোহাগ গাজীর বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা হয়েছে। কার্ডিফের মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি ল্যাবে পরীক্ষা দিয়ে শনিবার বিকালে দেশে ফেরেন তিনি। দেশে ফিরে পরীক্ষা সম্পর্কে সন্তুষ্টি ঝরেছে সোহাগ গাজীর কন্ঠে। তিনি বলেন, আমার দৃঢ় বিশ্বাস যে আমার বোলিং অ্যাকশন অবৈধ বলতে পারবে না তারা।

সোহাগ গাজী এখন অপেক্ষায় রয়েছেন ৬ ওভারের বোলিং পরীক্ষাটির ফল জানার জন্য। যদিও ফল পেতে প্রায় দুই সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হবে তাকে।

বোলিং অ্যাকশন নিয়ে অভিযোগ ওঠায় ওয়েস্ট ইন্ডিজে টেস্ট সিরিজ খেলতে পারেননি; এশিয়ান গেমসেও খেলা হচ্ছে না। এমন পরিস্থিতিতে মানসিক ভাবে বিধ্বস্ত কিনা? এর উত্তরে সোহাগ গাজী বলেন, একটু তো হতাশা আছেই। টেস্ট ম্যাচ না খেলতে পেরে বেশি খারাপ লেগেছে। সামনে এশিয়ান গেমস, সেখানেও খেলতে পারবো না। তবে সমস্যা যেহেতু হয়েছে; এসব ভেবে লাভ নেই। আইসিসি যখন অনুমতি দেবে তখন থেকেই আবার খেলায় মনোযোগ দেবো।

হাতে এখন অফুরন্ত সময়-অলস সময়টা কিভাবে কাটাবেন? এমন প্রশ্নে তিনি বলেছেন, সামনে ঈদ; ঈদে বাড়ি যাব। এছাড়া মুশফিক ভাইয়ের বিয়ে আছে; তার বিয়েতে যাওয়ার পরিকল্পনাও আছে। পাশাপাশি আমাকে জিম্বাবুয়ে বিপক্ষে সিরিজে খেলার জন্য মানসিক ভাবে প্রস্তুতিও নিয়ে রাখতে হবে। এজন্য ফিটনেস ধরে রাখতে যা যা করতে হয় এর সবই করবো।

বোলিং অ্যাকশনের ক্ষেত্রে ইতিবাচক ফল পাওয়ার ব্যাপরে কতোটুকু আত্মবিশ্বাস কাজ করছে? সোহাগ গাজী বলেছেন, আমি যেমন পরীক্ষা দিয়েছি তাতে করে আমার বিশ্বাস, ইতিবাচক ফলই আসবে। তারা আমাকে বলেছে স্বাভাবিক ভাবে বল করতে; আমি স্বাভাবিক বোলিং করেছি। পরীক্ষা শেষে তারা আমাকে অভয় দিয়েছে। বলেছে ইতিবাচক রেজাল্টের জন্য অপেক্ষা করতে। এরপরও আনুষ্ঠানিক ফল ঘোষণার আগে স্বস্তি না পাওয়ারই কথা; তবে স্বস্তিতে আছেন সোহাগ। বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দিয়ে আসার পর কথাটি নিজ মুখেই বলেছেন বাংলাদেশের এই কৃতী স্পিনার।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj