কচুর লতিতে চিংড়ী

উপকরণ : ১. ছোট বাগদা চিংড়ী-১৫০ গ্রামের পরিমান মত। ২.তেল -আন্দাজ দেড় টেবিল চামচ। ৩.কুচানো পিয়াজ -আধা কাপ। ৪.কুচানো রসুন -এক টেবিল চামচ দিন। ৫.হলুদ গুড়া-হাফ চা চামচ । ৬.মরিচ গুড়া-এক চা চামচ । ৭.জিরা গুড়া-এক চা চামচ । ৮.আদা রসুন বাটা-এক চা চামচ ও ৯.লবন- পরিমাণমত দিয়ে নাড়ুন। ১০.কাচাঁমরিচ – ফালি ৩/৪টা। ১১.কচুর লতি- ফ্রেশ ও কচি হাফ কেজি। রান্না-বান্না : কচুর লতি বেছে কেটে পরিস্কার করেধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। এখন নতুন লতিউঠছে সবে। হাইব্রিডের মোটা গুলো নাদেশি টা নিলে ভাল।স্বাদে ঠকবেন না। চিংড়ী মাছের মাথা লেজ খুলে আলাদাকরে বেটে নিয়েছি! কিছু কিছু অঞ্চলেএটাকে কুম বলে! চিংড়ী ও ইলিশ এরসাথে সবুজ সব্জি লাউ এর বেশ মিল।লাউ এর যেমনটি কিচ্ছুটি বাদ যায় না,তেমনিভাবে চিংড়ীর ও ইলিশের কিছুইবাদ যায় না। তবে বড় চিংড়ীর ক্ষেত্রেআলাদা কথা। এখন চিংড়ির বাটা অংশ আলাদা বাটিতেরাখুন। এবার চুলায় ছড়ানো কড়াই চাপান। এতে হিট কোথাও বেশি বা কম লাগবে না সমান থাকবে।এরপর এতে এক এক করে সব মশলা দিন। এবং ভালো করে কষান। এখন এতে চিংড়ি মাছ দিয়ে একটুনাড়ুন।  মাছ একটু নরম হলে এতে চিংড়ীর বাটা অংশ দিন। নেড়ে আধা কাপ মত পানি দিন। মশলামাছে মিশে গেলে লতি দিয়ে নেড়ে আঁচ বাড়িয়ে ঢেকে দিন। মিনিট চার পাচেঁক পর ঢাকনা খুলে দিন।আঁচ মাঝারী করুন। লতি থেকে পানি বের হবে। ওটা মাঝারী আচেঁই হালকা ভাবে কিচ্ছুক্ষন পর নেড়েদিন। দিন। ঝোল গা মাখা হয়ে এলে জিরা ফাঁকি আধা চা চামচ ছড়িয়ে দিয়ে নামিয়ে রাখুন। আর ঢাকনা দিবেন....

জুন ২৩, ২০১৮ খাবারদাবার |