রাষ্ট্রীয় সফর শেষে চীন ত্যাগ করলেন প্রেসিডেন্ট কিম

আগের সংবাদ

ধর্মঘট প্রত্যাহার করেছে বিআরটিসি শ্রমিকরা

পরের সংবাদ

সেই জেলারের জামিন হাইকোর্টে না মঞ্জুর

প্রকাশিত হয়েছে: জানুয়ারি ৯, ২০১৯ , ৮:১৬ অপরাহ্ণ | আপডেট: জানুয়ারি ৯, ২০১৯, ৮:১৬ অপরাহ্ণ

গত বছর নগত টাকা, বিপুল পরিমাণ অর্থের চেক এবং ফেনসিডিলসহ ধরা খাওয়া চট্টগ্রাম কারাগারের জেলার সোহেল রানা বিশ্বাসের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে তাকে কেন জামিন দেয়া হবে-তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ও সরকারকে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক।

এ সংক্রান্ত বিষয়ে শুনানি নিয়ে বুধবার হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল হেলেনা বেগম চায়না। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী একেএম ফজলুল হক এবং আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. আদনান রফিক।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ২৭ অক্টোবর ট্রেনে যাওয়ার পথে ভৈরব স্টেশনে বিপুল পরিমাণ টাকা ও মাদকসহ চট্টগ্রাম কারাগারের জেলার সোহেল রানা বিশ্বাসকে আটক করে রেলওয়ে পুলিশ। তার ব্যাগ তল্লাশি করে ৪৪ লাখ ৪৩ হাজার টাকা, আড়াই কোটি টাকার তিনটি ব্যাংক এফডিআর, এক কোটি ৩০ লাখ টাকার তিনটি চেক, পাঁচটি চেক বই ও ১২ বোতল ফেনসিডিল পাওয়া যায়।

জিজ্ঞাসাবাদে জেলার সোহেল জানিয়ে ছিলেন, বিপুল পরিমাণ টাকার মধ্যে পাঁচ লাখ টাকা তার নিজের। বাকি টাকা অন্যদের। এ অভিযোগে সোহেলের বিরুদ্ধে ভৈরব রেলওয়ে থানায় মানি লন্ডারিং ও মাদক আইনে পৃথক দুটি মামলা করে রেলওয়ে পুলিশ। দুটি মামলারই বাদী রেলওয়ে পুলিশের এসআই আশরাফ। পরে কারাগারে থাকাবস্থায় মাদক ব্যবসাসহ অফিসিয়াল শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে বরখাস্ত হন সোহেল রানা। বর্তমানে তিনি কিশোরগঞ্জ কারাগারে আছেন।