যুবলীগ নেতাসহ তিনজন কারাগারে

আগের সংবাদ

কলকাতায় মেট্রোরেলে ফের আগুন, আহত ৫০

পরের সংবাদ

বায়রা লাইফ ইন্স্যুরেন্সকে সাড়ে ৪ কোটি টাকা জরিমানা

প্রকাশিত হয়েছে: ডিসেম্বর ২৭, ২০১৮ , ৬:৫৪ অপরাহ্ণ | আপডেট: ডিসেম্বর ২৭, ২০১৮, ৬:৫৪ অপরাহ্ণ

দেশের বেসরকারি জীবন বীমা কোম্পানি বায়রা লাইফ ইন্স্যুরেন্সকে প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা জরিমানা করেছে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)।

বীমা আইন ২০১০-এর ৩০ ধারা ও ৩২ ধারা লঙ্ঘন করায় এ জরিমানা করা হয়েছে বলে বীমা খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইডিআরএর সংশ্লিষ্ট সূত্রে জনা গেছে।

সূত্র জানিয়েছে, ২০১১ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত টানা সাত বছর বায়রা লাইফ বীমা আইন লঙ্ঘন করেছে। এ আইন লঙ্ঘনের কারণে কোম্পানিটিকে চার কোটি ৪৮ লাখ ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

সূত্র জানিয়েছে, কোম্পানিটি ২০১১ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত দায় মূল্যায়ন করেনি এবং দায় মূল্যায়ন প্রতিবেদন আইডিআরএ’র কাছে জমা দেয়নি। এর মাধ্যমে বীমা আইন ২০১০-এর ৩০ ও ৩২ ধারা লঙ্ঘন হয়েছে।

এ লঙ্ঘনের দায়ে বায়রা লাইফকে বীমা আইন ২০১০-এর ১৩০ ধারা অনুযায়ী প্রতিবছরের জন্য ৫ লাখ টাকা করে ৩৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। আর ৭ বছর ধরে আইন লঙ্ঘন অব্যাহত থাকায় প্রতিদিন ৫ হাজার টাকা করে ২০১২ সালের অক্টোবর থেকে চলতি বছরের ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়ের জন্য ৪ কোটি ১৩ লাখ ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

যোগাযোগ করা হলে আইডিআরএ’র সদস্য ড. এম মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘জীবন বীমা কোম্পানির জন্য দায় মূল্যায়ন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিবছরই জীবন বীমা কোম্পানির দায় মূল্যায়ন করতে হয়। কোম্পানির পলিসি বোনাস, লভ্যাংশ দায় মূল্যায়নের ওপরই নির্ভর করে। কিন্তু বায়রা লাইফ সাত বছর ধরে দায় মূল্যায়ন না করে আইন লঙ্ঘন করেছে। এ জন্য কোম্পানিটিকে জরিমানা করা হয়েছে।’

বায়রা লাইফের বিরুদ্ধে গ্রাহকের দাবি পরিশোধ না করা এবং নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার পরও কোম্পানিটি পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়ার বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘এ বিষয়েও আমরা পর্যায়ক্রমে পদক্ষেপ নেব। তবে দায় মূল্যায়নের জন্য যে জরিমানা করা হয়েছে, সেটি একটি নির্দিষ্ট অপরাধের জন্য।’

তিনি আরও বলেন, ‘শুধু বায়রা লাইফ নয়, অন্য যে কোম্পানিগুলোও নিয়মিত দায় মূল্যায়ন করেনি তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। কোন কোম্পানি কোন সময় পর্যন্ত দায় মূল্যায়ন করেনি তা আমরা ক্ষতিয়ে দেখছি।’