নরসিংদীতে ৫ জন গ্রেপ্তার

আগের সংবাদ

লক্ষ্মীপুরে ৩ কর্মীকে পেটালেন ছাত্রলীগ নেতা

পরের সংবাদ

পাকিস্তানে ক্রিকেট খেলা নিয়ে দ্বন্ধে নিহত ৭

প্রকাশিত হয়েছে: নভেম্বর ২৪, ২০১৮ , ৬:৪০ অপরাহ্ণ | আপডেট: নভেম্বর ২৪, ২০১৮, ৬:৪০ অপরাহ্ণ

পাকিস্তানের পাখতুনখাওয়া এলাকায় ক্রিকেট খেলা নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এতে ৭ জন নিহত হয়েছেন।

আজ শনিবার প্রদেশটির অ্যাবোটাবাদ জেলায় এই ঘটনা ঘটে।

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ‘দ্য ডন’ এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, বাচ্চাদের ক্রিকেট ম্যাচ নিয়ে মাঠের ভেতর বাদানুবাদ হয়। কথা কাটাকাটি থেকে পরিস্থিতি উওপ্ত হয়ে ‍উঠলে বিষয়টি থানা পর্যন্ত গড়ায়। এরপর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেলে দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলিতে থানায় পুলিশের সামনেই সাতজনের মৃত্যু হয়।

ঘটনার আকস্মিকতায় হতবাক হয়ে গেছে অ্যাবোটাবাদ জেলার পুলিশ প্রশাসন। ডেপুটি সুপারিন্টেডেন্ট অব পুলিশ ইজাজ খান জানিয়েছেন, বাচ্চাদের ক্রিকেট ম্যাচ চলছিল। সেখানে দুই পক্ষ সামান্য ঝামেলা শুরু করে। তারপর তারা অভিযোগ দায়ের করার জন্য থানায় আসে। এসময় পুলিশ দুই পক্ষকেই বোঝানোর চেষ্টা করতে থাকে। কিন্তু হঠাৎ এক পক্ষ গুলি করতে শুরু করে। তারপর অন্য পক্ষও গুলি ছোঁড়ে। ফলে থানা চত্বরেই সাতজন মারা যায়। আর আহত হয় একজন।

এক প্রতক্ষ্যদর্শী বলছেন, পুলিশের সামনেই দুই পক্ষ উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় করছিল। তারপর একজন হঠাৎ বন্দুক বের করে গুলি চালাতে শুরু করে। দুই পক্ষই আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে বচসার জন্য তৈরি হয়েই এসেছিল। দুই পক্ষই প্রবল গোলাগুলি শুরু করে। যে পক্ষ প্রথম গুলি চালিয়েছিল সেই দলের তিনজন মারা গেছে। আর অন্য পক্ষের চারজনের মৃত্যু হয় ঘটনাস্থলেই। আরও একজন গুরুতর আহত হয়েছে।

এদিকে এমন ঘটনার পর পাকিস্তানের ক্রিকেট মাঠে নিরাপত্তা নিয়ে আরও একবার প্রশ্ন উঠে গেল। ক্রিকেট মাঠে কী করে দর্শকরা আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে প্রবেশ করতে পারেন। এমন প্রশ্নই করছেন অনেকে। তাছাড়া পুলিশের সামনেই কী করে দুই পক্ষ বন্দুক হাতে বচসায় জড়িয়ে পড়তে পারে তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন।