অবৈধ পথে ভারতে যাওয়ার সময ২৪ বাংলাদেশি আটক

আগের সংবাদ

নারায়ণগঞ্জে চালকের চোখ উপড়ে অটোরিকশা ছিনতাই

পরের সংবাদ

স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণের দায়ে যাবজ্জীবন

প্রকাশিত হয়েছে: নভেম্বর ১২, ২০১৮ , ৭:৩৭ অপরাহ্ণ | আপডেট: নভেম্বর ১২, ২০১৮, ৭:৩৭ অপরাহ্ণ

দিনাজপুরে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণ মামলায় আরমান আলীকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাকে ১ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়।

আজ সোমবার দিনাজপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ জালাল উদ্দিন আহাম্মদ এ রায় দেন। দণ্ডিত আরমান আলী (২৮) দিনাজপুর সদর উপজেলার মাঝাডাঙ্গা গ্রামের আবুল কালামের ছেলে। বর্তমানে কারাগারে রয়েছে আরমান।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, নির্যাতিত ছাত্রীর সঙ্গে একই স্কুলে পড়ালেখা করত আরমান আলীর বোন। বান্ধবীর ভাই হওয়ায় প্রায় স্কুলছাত্রীকে বাড়ি পৌঁছে দিয়ে আসত আরমান।

২০১১ সালের ১ আগস্ট স্কুলছাত্রী পরীক্ষা দিয়ে বের হলে আরমান আলী জানায় শহরের বাহাদুর বাজারে অষ্টম শ্রেণির সাধারণ জ্ঞানের প্রশ্ন পাওয়া যায়। এই কথা বলে স্কুলছাত্রীকে বাহাদুর বাজার রেহানা বোর্ডিংয়ে নিয়ে যায় আরমান। সেখানে আটকে রেখে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়। সেই সঙ্গে এ ঘটনা কাউকে জানালে স্কুলছাত্রী ও তার বাবাকে হত্যার হুমকি দেয় আরমান।

পরে বাড়ি ফিরে বিষয়টি মাকে জানায় স্কুলছাত্রী। এ ঘটনায় ২১ আগস্ট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করা হয়। মামলার তদন্ত শেষে আদালতে চার্জশিট দেয় পুলিশ।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন- নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি মো. মেহবুব হাসান চৌধুরী লিটন ও আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী মোজাম্মেল হক মনি।