সংবাদকর্মীদের জন্য ৪৫ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা ঘোষণা

আগের সংবাদ

নিজের ঘরেই ঐক্য নাই, বিএনপি করবে জাতীয় ঐক্য

পরের সংবাদ

লিবিয়া উপকূলে নৌকাডুবিতে ১০০ অভিবাসীর মৃত্যু

প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৮ , ৬:৪২ অপরাহ্ণ | আপডেট: সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৮, ৬:৪২ অপরাহ্ণ

চলতি মাসের শুরুর দিকে লিবিয়ার ভূমধ্যসাগরীয় উপকূলে রাবারের নৌকা ডুবে ২০ শিশুসহ ১০০ জনের বেশি অভিবাসন মৃত্যু বরণ করেছেন। দাতব্য সংস্থা ডক্টরস উইথআউট বডার্স(এমএসএফ) এই তথ্য জানিয়েছে। খবর আল জাজিরা ও বিবিসির।

সোমবার নৌকাডুবিতে বেঁচে থাকা এক অভিবাসীর বরাত দিয়ে এক বিবৃতিতে এমএসএফ জানায়, নিহতদের মধ্যে ১৭ মাস বয়সী যমজ শিশু ও তাদের মা-বাবাও রয়েছেন।

দুটি নৌকা ১ সেপ্টেম্বর লিবিয়ার উপকূল থেকে ছেড়ে যায়। তাদের মধ্যে একটি নৌকা বিস্ফোরিত হয়ে ডুবে যায়। অভিবাসীদের মধ্যে অধিকাংশই সুদান, মালি, নাইজেরিয়া, ক্যামেরুন, ঘানা, লিবিয়া, আলজেরিয়া ও মিশরের নাগরিক ছিল।

নৌকাডুবি থেকে উদ্ধার হওয়া ২৭৬ জন অভিবাসীকে ত্রিপলি থেকে ১০০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত বন্দর নগরী খোমসে নিয়ে যাওয়া হয়।

এমএসএফ বলছে, এই গোষ্ঠীগুলোকে এখন ‘নির্বিচারে আটক’ রাখা হয়েছে।

বেঁচে থাকা যাত্রীদের মধ্যে গর্ভবতী নারী, শিশু এবং নবজাতক রয়েছে। জ্বালানি তেল বিচ্ছুরিত হয়ে অনেকেই দগ্ধ হয়েছেন এবং নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে।

আন্তর্জাতিক অভিবাসী সংস্থা(আইওএম) এর তথ্য মতে, এ বছর ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিতে গিয়ে ১৫০০’র বেশি অভিবাসী মারা গেছেন।