খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে কারাগারে চার আইনজীবী

আগের সংবাদ

সোনালির নতুন ছবি প্রকাশ, বই পড়ে বাঁচার লড়াই

পরের সংবাদ

জিয়ার সময় কারাগারে আদালত বসিয়ে তাহেরের ফাঁসি হয়

প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৮ , ৬:২২ অপরাহ্ণ | আপডেট: সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৮, ৬:২২ অপরাহ্ণ

কারাগারে বেগম খালেদা জিয়ার বক্তব্য দেশের আইন ও আদালতের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং দলের অন্যতম মুখপাত্র ড. হাছান মাহমুদ এমপি।

শুক্রবার ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ের নতুন ভবনে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির নিয়মিত বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

‘আদালতকে বন্দি করা হয়েছে’ বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভীর সাম্প্রতিক এমন বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, প্রকৃতপক্ষে আদালতকে বেগম জিয়া, বিএনপি এবং বিএনপির আইনজীবীরা হেনস্তা করছে। সুতরাং বিএনপি এ সমস্ত বক্তব্য দিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা করছে।

তিনি বলেন, গত সাড়ে নয় বছর ধরে তাদের (বিএনপির) জনগণের কোন বিষয় নিয়ে মাথাব্যথা ছিলো না। তাদের সমস্ত রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের চিন্তা চেতনার মূল বিষয় ছিল বেগম জিয়ার মুক্তি, নির্বাচন, নির্বাচন কমিশন এবং নির্বাচনের সময় কোন ধরণের সরকার হবে।

বেগম খালেদা জিয়ার সুবিদার জন্য কারাগারে আদালত বসানো হয়েছে জানিয়ে সাবেক বন ও পরিবেশ মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সর্বপ্রথম কারাগারে আদালত বসিয়ে ছিল বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান। সে সময় ওই আদালতে কর্নেল তাহেরের ফাঁসি দিয়েছিল। বেগম খালেদা জিয়া যখন ক্ষমতায় ছিল তখন এরশাদ সাহেবের জন্য কারাগারে আদালত বসানো হয়েছিল। এখন বেগম খালেদা জিয়ার সুবিধার্থে কারাগারে আদালত বসানো হচ্ছে। কারণ বার বার মামলার তারিখ পড়ার পরও অসুস্থতার কথা বলে তিনি কারাগারের বাইরে যেতে অপারগতা জানান এবং গত ৬ মাস ধরে তিনি এক দিনও আদালতে হাজির হননি। তাই তার সুবিধার্থে কারাগারে আদালত বসানো হয়েছে।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, তথ্য প্রযুক্তি ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপ প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিনসহ প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির সদস্যবৃন্দ।