দৌলতদিয়ায় যৌনপল্লীর প্রতিটি মৃত্যুই রহস্য ঘেরা

আগের সংবাদ

ভারতে নতুন করে বিনিয়োগ করবে আলিবাবা

পরের সংবাদ

সন্তানের ভবিষ্যৎ ভাবনায় বিভোর সানিয়া

প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৮ , ২:৫৯ অপরাহ্ণ | আপডেট: সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৮, ২:৫৯ অপরাহ্ণ

নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে মা হতে যাচ্ছেন ভারতীয় টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা। পিতা-মাতার মতো সন্তানও খেলোয়াড় হবে- এমনটিই আশা ক্রিকেটার শোয়েব মালিক এবং টেনিসার সানিয়া মির্জার। কারণ খেলা থেকে জীবনের উত্থান-পতনগুলো কীভাবে কাটিয়ে ওঠা যায় তা জানা যায়। খেলায় বারবার কোনো খেলোয়াড়কে কঠিন পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে হয়, যেটি বাস্তব জীবনের অনেক প্রভাব বিস্তার করে থাকে। এ কারণে ৩১ বছর বয়সী এ টেনিস সুন্দরী মনে করেন, পেশা হিসেবে খেলাই বেস্ট। সব বাবা-মায়ের উচিত তাদের সন্তানকে খেলাধুলায় উৎসাহিত করা।

গতকাল নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে এক অনুসরণকারীর প্রশ্নর উত্তরে সানিয়া মির্জা বলেন, পেশা হিসেবে খেলাই সবচেয়ে ভালো। কারণ এখান থেকে অনেক কিছু শেখা যায়। শোয়েব মালিক আর আমি খেলাধুলা থেকে অনেক কিছু শিখেছি। ফলে সহজেই জীবনের কঠিন পরিস্থিতিগুলো অতিক্রম করতে সক্ষম হয়েছি। তিনি বলেন, বর্তমান সমাজে টিকতে হলে অনবরত সংগ্রাম করে যেতে হবে। এটা প্রতিযোগিতার সময়। এখানে সফল হতে হলে অনেক সহ্য ক্ষমতা থাকতে হবে। একবার হেরে গেলে ফের ওঠে দাঁড়ানোর সাহস রাখতে হবে। না হলে কেউই সফলতার শিখরে চড়তে পারবে না। আর এই সহ্য ক্ষমতা বা বারংবার প্রতিযোগিতা করার যে মানসিকতা তা কেবল খেলা থেকেই সহজে আয়ত্ত করা সম্ভব।

২০১০ সালের মাঝামাঝিতে সানিয়া মির্জা এবং পাকিস্তানি ক্রিকেটার শোয়েব মালিক বিবাহবন্ধনে জড়ান। সে সময় হায়দরাবাদের ঐতিহ্যবাহী মুসলিম বিবাহ রীতি অনুসরণ করেই শোয়েবের সঙ্গে তিনি মালা বদল করেন। এর আগে ২০০৯ সালে সানিয়া ভারতের কোটিপতি ব্যবসায়ী শোহরাব মির্জার সঙ্গে আংটি বদল করেছিলেন। তবে কিছুদিন পরেই শোহরাবের সঙ্গে বিয়ের বাতিল করে দেয়া হয়।