বৃষ্টিতে পায়ের যত্ন

আগের সংবাদ

ব্রণ প্রতিরোধের ঘরোয়া পদ্ধতি

পরের সংবাদ

শেষ আটে জকোভিচ

শারাপোভা-ফেদেরারের বিদায়

প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৮ , ২:৪৪ অপরাহ্ণ | আপডেট: সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৮, ৩:৫১ অপরাহ্ণ

চলমান ইউএস ওপেনের শুরু থেকেই দুর্দান্ত খেলছিলেন রাশিয়ান টেনিস সুন্দরী মারিয়া শারাপোভা। কিন্তু গতকাল শেষ ষোলোর বাধা পেরুতে ব্যর্থ হয়েছেন তিনি। ৩১ বছর বয়সী এ তারকা খেলোয়াড় শেষ ষোলোয় স্প্যানিশ টেনিস কন্যা কারলা সুয়ারেজের কাছে ৬-৪, ৬-৩ সেটে হেরেছেন। এ ছাড়া এদিন আরো হেরেছেন সুইস টেনিস গ্রেট রজার ফেদেরার। ফেদেরার ক্যারিয়ারের ২১তম গ্র্যান্ডস্লাম শিরোপা জেতার স্বপ্ন নিয়ে ইউএস ওপেনে অংশ নিয়েছিলেন। শিরোপা জেতা তো দূরের কথা, শেষ আটেই জায়গা নিশ্চিত করতে পারেননি তিনি। ইউএস ওপেনের শেষ ষোলোর খেলায় গতকাল অস্ট্রেলিয়ান টেনিস তারকা জন মিলম্যানের কাছে ফেদেরার ৩-৬, ৭-৫, ৭-৬ (৯-৭), ৭-৬ (৭-৩) সেটে হেরেছেন। অন্যদিকে ফেদেরার-শারাপোভার পরাজয়ের দিনে শেষ আটের টিকেট কেটেছেন সার্বিয়ান খেলোয়াড় নোভাক জকোভিচ। তিনি পর্তুগিজ টেনিস খেলোয়াড় জোয়াও সোসাকে ৬-৩, ৬-৪, ৬-৩ সেটে হারিয়েছেন।

টুর্নামেন্টের শুরু থেকে নজরকাড়া পারফরমেন্স করতে থাকা শারাপোভা শেষ ষোলোয় এসে খেই হারিয়ে ফেলেন। প্রথম গেমে কিছুটা ভালো করলেও দ্বিতীয় গেমে আরো খারাপ পারফরমেন্স করেন তিনি। যে কারণে প্রথম সেটে ৬-৪ ব্যবধানে হারলেও শেষ সেটটি ৬-৩ ব্যবধানে হারতে হয়েছে তাকে। অন্যদিকে কারলার জন্য এ জয়টা আনন্দেরই বটে। নিজের ৩০তম জন্মদিনের রাতে শারাপোভার মতো তারকার বিপক্ষে জয় পাওয়াটা তো আর সোজা কথা না! এ জয়ের ফলে কারলা দারুণ উচ্ছ্বসিত। অন্যদিকে পাঁচবারের গ্র্যান্ডস্লাম জয়ী শারাপোভাও ঠিক ততটাই হতাশ। এ সম্পর্কে শারাপোভা বলেন, প্রতিটি ক্ষেত্রে নিজের প্রতি অগাধ বিশ্বাস রাখতে হবে, নইলে এ জগতে কোনো কিছুই সম্ভব নয়। এ ম্যাচে আমার নিজের প্রতি বিশ্বাস ছিল না। ম্যাচের শুরু থেকেই কেমন জানি একটা অনুভ‚তি হচ্ছিল। যে কারণে প্রথম গেমের চেয়ে দ্বিতীয় গেমে আরো খারাপ পারফরমেন্স করি। রাশিয়ান এ তারকা আরো বলেন, তরুণ বয়সে যেটা অনায়াসে করা যেত এখন আর সেটা সম্ভম হচ্ছে না। এ বয়সে এসে ভালো কিছু করা নিজের জন্য চ্যালেঞ্জিংই বটে।

অন্যদিকে শারাপোভার মতো ফেদেরারও কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার দৌড়ে ছিটকে পড়েছেন। তিনি গত বছর ইউএস ওপেনের সেমিতে খেললেও এবার কোয়ার্টার ফাইনালে খেলার যোগ্যতাই অর্জন করতে পারেননি। ফেদেরারের বিপক্ষে জয় পেয়ে মিলম্যান বলতে গেলে অনেকটাই অবাক হয়েছেন। তিনি বলেন, ফেদেরারকে আমি আমার টেনিস ক্যারিয়ারে আদর্শ মনে করি। তাকে হারানোর পর আমি নিজের চোখকেই বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। তবে হ্যাঁ, নিজের আদর্শ খেলোয়াড়কে হারাতে আমাকে সেরাটাই দিতে হয়েছে। এটাকেই আমার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে দামি ম্যাচ বলা যায়।