ফের হলিউডের ছবিতে দীপিকা

আগের সংবাদ

আতিফের গাওয়া 'চলতে চলতে'র গানে ক্ষুব্ধ লতা

পরের সংবাদ

শহিদুল আলমের জামিন শুনানিতে বিব্রত হাইকোর্টের বেঞ্চ

প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৮ , ১:৫৫ অপরাহ্ণ | আপডেট: সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৮, ১:৫৬ অপরাহ্ণ

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলায় আলোকচিত্রী শহিদুল আলমের জামিন আবেদনের শুনানিতে বিব্রত বোধ করেছেন হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ। মঙ্গলবার বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুস ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে এই ঘটনা ঘটে।

আবেদনকারীর পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার সারা হোসেন, ড. শাহদীন মালিক ও ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ, অমিত তালুকদার ও অরবিন্দ কুমার রায়।

শহিদুল আলমের আইনজীবীরা জানান, নিয়ম অনুসারে এখন মামলাটি প্রধান বিচারপতির কাছে যাবে। প্রধান বিচারপতি সেটির শুনানির জন্য আরেকটি বেঞ্চ নির্ধারণ করবেন।

জামিন আবেদন শুনানির আগে আদালতে আবেদনটির বিষয় (মেনশন) তুলে ধরেন ব্যারিস্টার সারা হোসেন। তখন আদালত বলেন, আমাদের একজন বিচারপতি আবেদনটি শুনতে বিব্রত বোধ করেছেন। তাই আবেদনটি শুনবো না।

এই সময় আদালতের কাছে বিব্রত হওয়ার কারণ জানতে চান সারা হোসেন। কিন্তু আদালত কোনো কারণ জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন। এরপর শহিদুল আলমের পক্ষে ড. শাহদীন মালিক শুনানি করতে দাঁড়ান। কিন্তু আদালত শুনানি করবেন না জানিয়ে আবেদনটি প্রধান বিচারপতির কাছে পাঠানোর আদেশ দেন।

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন চলাকালে গত ৬ আগস্ট ‘উসকানিমূলক মিথ্যা’ প্রচারের অভিযোগে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলায় শহিদুল আলমকে রিমান্ডে নেয় পুলিশ। এর আগের দিন রাতে তাকে ধানমন্ডির বাসা থেকে তুলে নেয় ডিবি পুলিশ। সাত দিনের রিমান্ড শেষে গত ১২ আগস্ট তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন নিম্ন আদালত।

এরপর গত ৬ আগস্ট ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম শহিদুল আলমের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন।