হকিতে ষষ্ঠ বাংলাদেশ

আগের সংবাদ

ডাকসাইটেদের ডাকনাম

পরের সংবাদ

রোনালদো-রিয়াল কে কাকে মিস করছে?

প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ২, ২০১৮ , ৪:১৪ অপরাহ্ণ | আপডেট: সেপ্টেম্বর ২, ২০১৮, ৪:১৪ অপরাহ্ণ

ইউরোপের দল বদলের এই মৌসুমে স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে ১০০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাস যোগ দিয়েছেন পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। সে সঙ্গে ছিন্ন হলো রোনালদো ও রিয়ালের মধ্যকার দীর্ঘ ৯ বছরের সম্পর্কের। পর্তুগিজ সুপারস্টারের রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়ার পর থেকেই গণমাধ্যমে উঠে আসে নানা আলোচনা। সে আলোচনার প্রধান বিষয় রিয়াল মাদ্রিদ কীভাবে কাটিয়ে উঠবে পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী তারকার শূন্যতা।

অন্যদিকে ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটি ও স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদের মতো ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসেও কী ইতিহাস রচনা করবেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোÑ সে কৌত‚হলও জাগে ফুটবলপ্রেমীদের মনে। রোনালদোকে ছাড়া ইতোমধ্যে প্রাক মৌসুম প্রস্তুতিসহ অনেকগুলো ম্যাচ খেলে ফেলেছে রিয়াল মাদ্রিদ। অন্যদিকে নতুন ক্লাব জুভেন্টাসের জার্সিতে রোনালদোও খেলেছেন দুটি ম্যাচ। এরমধ্যেই উঠে এসেছে আরেকটি নতুন আলোচনা- রোনালদো কি মিস করছেন তার সাবেক ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদকে নাকি রিয়াল মাদ্রিদ মিস করছে রোনালদোকে।

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো চলে যাওয়ার পর নতুন কোচ হুলেন লোপেতেগুইয়ের অধীনে প্রাক মৌসুম প্রস্তুতির অংশ হিসেবে ইন্টারল্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন্স কাপে অংশ নেয় রিয়াল মাদ্রিদ। যেখানে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কাছে ২-১ গোলে হেরে যায় তারা। এরপর সর্বত্র আলোচনা হতে শুরু করে রোনালদোবিহীন রিয়াল মাদ্রিদ এ মৌসুমে চরম ব্যর্থ হবে। কিন্তু সকল সমালোচনার জবাব দিয়ে পরের ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়ায় লোপেতেগুইয়ের শিষ্যরা। ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন কাপের ওই ম্যাচটিতে ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসকে ৩-১ গোলে হারায় তারা।

এরপর টুর্নামেন্টে নিজেদের শেষ ম্যাচে রোমার বিপক্ষে ২-১ গোলের জয় পায় রিয়াল মাদ্রিদ। তবে ক্লাবটি রোনালদোর অভাবটা বেশ ভালোভাবে বুঝতে পারে উয়েফা সুপার কাপের শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে। এ বছরের উয়েফা সুপার কাপের ম্যাচে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের কাছে ৪-২ গোলে হেরেছে রিয়াল মাদ্রিদ। ওই ম্যাচশেষে রোনালদোকে মিস করার কথা জানিয়েছিলেন মিডফিল্ডার কাসেমিরোসহ রিয়ালের আরো বেশ কয়েকজন তারকা। তবে রোনালদোর অভাবটা লা লিগায় উপলব্ধি করতে দিচ্ছেন না রিয়াল মাদ্রিদের আক্রমণভাগের খেলোয়াড়রা।

এবারের লা লিগায় নিজেদের প্রথম ম্যাচে গেটাফের বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় পেয়েছে লোপেতেগুইয়ের শিষ্যরা। এরপর নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে জিরোনাকে ৪-১ গোলে হারিয়েছে তারা। সে হিসেবে বলা যায়, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর শূন্যতা বেশ ভালোভাবেই কাটিয়ে উঠছে ফুটবল ইতিহাসের সফলতম ক্লাবটি। খুব শিগগিরই হয়ত রোনালদোকে মিস করাটা পুরোপুরি কাটিয়ে উঠবেন রিয়াল মাদ্রিদের খেলোয়াড় ও সমর্থকরা।

২০০৯ সালে রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেয়া রোনালদো ছিলেন ক্লাবটির প্রাণভোমরা। তাই তার চলে যাওয়াটা নিশ্চয়ই কষ্টের ক্লাবটির খেলোয়াড় ও সমর্থকদের জন্য। যার প্রমাণ পাওয়া গেছে লা লিগার প্রথম ম্যাচে সান্টিয়াগো বার্নাব্যুর গ্যালারিতে দর্শক উপস্থিতি দেখে। কেননা, গেটাফের বিপক্ষে অনুষ্ঠিত ওই ম্যাচটিতে গত এক দশকের মধ্যে দর্শক উপস্থিতি ছিল সবচেয়ে কম। এতেই বুঝা যায় প্রিয় তারকাকে বেশ মিস করছেন মাদ্রিদ সমর্থকরা।