স্নায়ুযুদ্ধের পর সবচেয়ে বড় সামরিক মহড়ায় রাশিয়া

আগের সংবাদ

সাগরে লঘুচাপ, উপকূলে ঝড়ের আশঙ্কা

পরের সংবাদ

আবারও ফিক্সিংয়ের অভিযোগ অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে

প্রকাশিত হয়েছে: আগস্ট ২৮, ২০১৮ , ৮:১৩ অপরাহ্ণ | আপডেট: আগস্ট ২৮, ২০১৮, ৮:১৩ অপরাহ্ণ

কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আলজাজিরা ক্রিকেটের ‘স্পট ফিক্সিং’ নিয়ে প্রামাণ্যচিত্র প্রকাশ করে হইচই ফেলে দিয়েছে। সেই অভিযোগ এখনো সামাল দিয়ে উঠতে পারেনি আইসিসি। আবার নতুন ফিক্সিংয়ের খবর প্রকাশ করতে যাচ্ছে তারা। এরই মধ্যে সেই খবরে ক্রিকেট পাড়ায় উত্তেজনা শুরু হয়ে গেছে। বিশেষ করে অস্ট্রেলিয়ায়।

আইসিসি সূত্রে জানা যায়, সাবেক এবং বর্তমান অজি ক্রিকেটারদের স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার ঘটনা খতিয়ে দেখে একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন করেছে আলজাজিরা। টিভি চ্যানেলটির মতে, ফিক্সিংটি ২০১১ সালের ঘটনা। আলজাজিরার অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াও (সিএ)। তবে অভিযোগের সত্যতা নেই বলে দাবি তাদের।

আইসিসি জানিয়েছে, তারা আলজাজিরার করা প্রথম স্পট ফিক্সিংয়ের প্রতিবেদনের ব্যাপারে একজনের নাম পেয়েছে। তবে সেটা এখনও প্রমাণ হয়নি বলে দাবি আইসিসির। প্রথম প্রতিবেদন প্রচারিত হয় চলতি বছরের মে মাসে। সেখানে ২০১৭ সালের ভারত-অস্ট্রেলিয়ার রাঁচি টেস্টে স্পট ফিক্সিংয়ের কথা উল্লেখ করা হয়। নাম নেওয়া হয়েছে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের। অনিল মুনাওয়ার নামের এক ব্যক্তি ফিক্সিংয়ে পরিকল্পনা সাজান বলে দাবি করা হয়েছে তাতে।

দ্বিতীয় প্রামাণ্যচিত্রেরও প্রধান চরিত্র মুনাওয়ার। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহি জেমস সাদারল্যান্ড মঙ্গলবার এক বিবৃতি দিয়েছেন। তাতে তিনি বলেন, ‘আলজাজিরার প্রতিবেদন নিয়ে জেনেছি। এর আগে তাদের প্রামাণ্যচিত্র নিয়ে আইসিসির দুর্নীতি দমন ইউনিট অনুসন্ধান চালায়। যদিও আলজাজিরার অসহযোগিতার কারণে সে অনুসন্ধানে ব্যাঘাত সৃষ্টি হয়। আমরাও তদন্ত করেছি। তবে এ পর্যন্ত কোনো ফিক্সিংয়ে প্রমাণ পাওয়া যায়নি।’

আইসিসির দুর্নীতি দমন ইউনিটের প্রধান অ্যালেক্স মার্শাল প্রামাণ্যচিত্রের অভিযোগ অসমাপ্ত বলে জানিয়েছেন। তদন্ত কাজে আলজাজিরা প্রয়োজনীয় তথ্য ও প্রমাণ দিচ্ছে না বলেও অভিযোগ তার। মার্শাল বলছেন, অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটারদের ফিক্সিংয়ের অভিযোগটি নিয়ে এরই মধ্যে কাজ শুরু করে দিয়েছেন তারা।