সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সেনা মোতায়েনে আপত্তি নেই : সাদিক আবদুল্লাহ

আগের সংবাদ

সিঙ্গাপুরে ১৫ লাখ মানুষের তথ্য হাতিয়ে নিয়েছে হ্যাকাররা

পরের সংবাদ

বরিশালের মানুষ কোনো কারচুপি মানবে না : সরোয়ার

প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ২১, ২০১৮ , ১২:০৪ অপরাহ্ণ | আপডেট: জুলাই ২১, ২০১৮, ১২:১২ অপরাহ্ণ

বিএনপি মনোনীত মেয়রপ্রার্থী এডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার বলেছেন, বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে খুলনা ও গাজীপুরের মতো কারচুপি করতে চাইলে বরিশালের মানুষ তা মেনে নেবে না। বড় আন্দোলনের মুখে পড়বে সরকার। যা আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য বড় ইস্যু হয়ে দাঁড়াতে পারে। ভোরের কাগজকে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি আরো বলেন, দীর্ঘদিন আমি এ এলাকার সাংসদ ছিলাম। প্রথম নির্বাচিত মেয়রও আমি। আমার সময়ে বরিশালে যে উন্নয়ন হয়েছে, তা ভুলে যায়নি নগরবাসী। সরকারি উন্নয়নের বাইরে আমার ব্যক্তিগত উন্নয়ন এখনো চলছে।

ভোরের কাগজ : বর্তমানে নির্বাচনের পরিবেশ কেমন?
মজিবর রহমান সরোয়ার : বিরোধী নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার চলছেই, ফলে জনমনে আতঙ্ক রয়েছে। এ ছাড়া ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীর লোকজন সমানে আচরণবিধি লঙ্ঘন করছেন। এরই মধ্যে পুলিশ কমিশনারের গায়ে হাত দেয়া হয়েছে, এতে মানুষের মনে ধারণা জন্মেছে এরা (আওয়ামী লীগ) বুঝি সবই পারে। সব মিলিয়ে সুষ্ঠু ভোট নিয়ে শঙ্কা রয়েছে। আমি নির্বাচন কমিশনকে বলেছি, নির্বাচনের দিন সকালে ব্যালট পেপার কেন্দ্রে পাঠাতে, কিন্তু ইসি তাতে রাজি হয়নি। এ অবস্থায় সবার মনেই প্রশ্ন, ভোটের দিন কী হবে।

ভোরের কাগজ : আপনার জনসংযোগে কোনো প্রতিবন্ধকতা তৈরি হচ্ছে কি?
সরোয়ার : না, আমার চলায় কোনো প্রতিবন্ধকতা তৈরি হচ্ছে না। তবে আমার পক্ষে যারা প্রচারণা চালাচ্ছেন, তাদের বাধা দেয়া হচ্ছে। তারা ঠিকমতো কাজ করতে পারছেন না।

ভোরের কাগজ : আপনি জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ঘোষণা দিয়েছিলেন, মেয়রপ্রার্থী হলেন কেন?
সরোয়ার : নির্বাচন তো আমার স্বাধীনতায় হয় না। দলের সিদ্ধান্তে আমাকে নির্বাচন করতে হয়। এখানেও তাই হয়েছে।

ভোরের কাগজ : ভোটের মাঠে ২০ দলীয় জোটের কোনো তৎপরতা দেখা যাচ্ছে না, বিশেষ করে জামায়াতে ইসলামীর কোনো নেতাকর্মী আপনার সঙ্গে নেই। এর কারণ কী?

মজিবর রহমান সরোয়ার : ২০ দল আমার সঙ্গেই আছে। জামায়াত একটু ভয়ের মধ্যে থাকায় তারা গোপনে কাজ করছে। তাদের সঙ্গে ২০ দলীয় জোটের সমন্বয়ক নজরুল ইসলাম খানকে নিয়ে বৈঠক হয়েছে। জামায়াত একসঙ্গে কাজ করছে, করবে।

ভোরের কাগজ : বর্তমান মেয়র আহসান হাবিব কামালও বিএনপি নেতা। তাকে ব্যর্থ মেয়র হিসেবে মনে করে বরিশালের ভোটাররা। এর দায় আপনার ঘাড়ে পড়বে কিনা?
সরোয়ার : সরকার যে তাকে কাজ করতে দেয়নি এটা বরিশালের মানুষ জানে। এর প্রভাব বরং সরকারের ঘাড়ে পড়বে বলে আমি মনে করি।

ভোরের কাগজ : মেয়র নির্বাচিত হলে নগরীর সমস্যাগুলো কীভাবে সমাধান করবেন?
সরোয়ার : আমি এ সিটি করপোরেশনের প্রথম নির্বাচিত মেয়র। সমস্যার সমাধান কীভাবে করতে হয় সে অভিজ্ঞতা আমার রয়েছে। তারপরও ইশতেহারে বিস্তারিত বলেছি। অভিজ্ঞ ও প্রজ্ঞাবানদের নিয়ে সমস্যাগুলোর গুরুত্ব চিহ্নিত করব, এরপর ধারাবাহিকভাবে তা সমাধানে ঝাঁপিয়ে পড়ব।