ভরা মৌসুম চলছে তারপরও ইলিশের দেখ মিলছে না

আগের সংবাদ

মৎস্য উৎপাদনে দুই ধাপ এগোল বাংলাদেশ

পরের সংবাদ

সিসিক নির্বাচন: প্রচারণায় নামছেন কেন্দ্রীয় নেতারা

প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ১৮, ২০১৮ , ১০:৫৫ অপরাহ্ণ | আপডেট: জুলাই ১৮, ২০১৮, ১০:৫৫ অপরাহ্ণ

সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের দিন যত ঘনিয়ে আসছে, ততই জমে উঠছে প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা। পোস্টার সাঁটানোর পাশাপাশি চলছে মাইকিং। সমর্থকদের নিয়ে পাড়া-মহল্লা ঘুরে বেড়াচ্ছেন প্রার্থীরা। আকৃষ্ট করতে দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। সব মিলিয়ে সিলেটে বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ।

স্থানীয় নেতা-কর্মীদের পাশাপাশি মেয়র প্রার্থীদের প্রচারণায় নেমেছেন বিভিন্ন দলের কেন্দ্রীয় নেতারা। বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীর প্রচারণায় নেমেছেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহানসহ কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতা। আর আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের সমর্থনে প্রচারণায় নেমেছেন দলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন। পিছিয়ে নেই জামায়াত, ইসলামী আন্দোলনও।

আগামী ৩০ জুলাই সিলেটসহ দেশের তিন সিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন নিয়ে নানা শঙ্কা থাকলেও প্রার্থীরা শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রচারণা নিয়ে। ইতিমধ্যে বড় দুই দল একে-অপরের বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগ এনেছে। তবে এখন পর্যন্ত তেমন কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার সংবাদ মেলেনি।

২০ দলীয় জোট সমর্থিত ও বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীর সমর্থনে বুধবার নগরীর মদিনা মার্কেট এবং সুবিদবাজারে গণসংযোগ করেন বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান। এ সময় তিনি সিলেটবাসীর স্বপ্নের নগরের প্রয়োজনে আরিফুল হক চৌধুরীকে বিজয়ী করার আহ্বান জানান।

গণসংযোগকালে আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, ‘‘নগরের উন্নয়ন এবং স্বার্থরক্ষায় নিজেকে উৎসর্গ করতে পিছপা হবো না। আমাকে জুজুর ভয় দেখাবেন না, যেখানে মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে নগরীর উন্নয়নই লক্ষ্য, সেখানে সকল ষড়যন্ত্র বানের পানিতে ভেসে যাবে।’’

নগরীর শামীমাবাদ গলির মুখ, বর্ণমালা পয়েন্ট, নরসিংটিলা বাগবাড়ি নুরানী মসজিদ এলাকায় গণসংযোগ করেন আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান।

এ সময় তিনি বলেন, ‘‘কেউ কেউ নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য পরিকল্পিতভাবে অপতৎপরতা চালাচ্ছেন, অবাদে ভিত্তিহীন কথাবার্তা বলছেন। আমি মনে করি- প্রার্থী হিসেবে যারা নিজেদের দুর্বল ভাবেন তারাই অপপ্রচার চালান।’’

তিনি বলেন, ‘‘সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে নগরবাসীকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু তারা এটা জানেন না যে, অপপ্রচার চালিয়ে নগরবাসীকে বিভ্রান্ত করা যাবে না। কোনোভাবেই ঠেকানো যাবে না নৌকার বিজয়।’’

কামরানের সমর্থনে গত কয়েক দিন ধরে প্রচারণায় রয়েছেন দলের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন। তিনি বুধবারও নগরীর বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করেছেন।

সিলেট সিটি নির্বাচনে সিলেট নাগরিক ফোরাম সমর্থিত মেয়র পদপ্রার্থী নগর জামায়াতে ইসলামীর আমীর এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের ২৪নং ওয়ার্ডের তেররতন এলাকায় টেবিল ঘড়ি মার্কার সমর্থনে পথসভা করেন।