ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে তীব্র যানজট

আগের সংবাদ

জম্মু-কাশ্মিরে পাক সেনাবাহিনীর গুলিতে ৪ বিএসএফ সদস্য নিহত

পরের সংবাদ

আওয়ামী লীগ ও বিএনপিতে একাধিক মনোনয়ন প্রত্যাশী

প্রকাশিত হয়েছে: জুন ১৩, ২০১৮ , ১:১৪ অপরাহ্ণ | আপডেট: জুন ১৩, ২০১৮, ১:১৪ অপরাহ্ণ

জেলার দুর্গাপুর ও কলমাকান্দা উপজেলা নিয়ে গঠিত নেত্রকোনা-১ আসনে বইছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগাম হাওয়া। এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপিতে রয়েছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীর ছড়াছড়ি। এর মধ্যে আওয়ামী লীগে একই পরিবারের একাধিক মনোনয়ন প্রত্যাশী নির্বাচনী মাঠে কাজ করে যাচ্ছেন।
নির্বাচনী এলাকার দুই উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলোতে বেশ কিছু দিন ধরেই শোভা পাচ্ছে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ছবিসংবলিত রং-বেরংয়ের ব্যানার, ফেস্টুন ও পোস্টার। এলাকায় দীর্ঘদিন পর কদর বাড়ছে তৃণমূল নেতাকর্মীদের। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগে দেড় ডজনের মতো মনোনয়ন প্রত্যাশী এবং বিএনপিতে আছেন প্রায় হাফ ডজন। এ আসনে আওয়ামী লীগ-বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী বেশি হওয়ায় দলের নেতাকর্মীরা পড়েছেন বেকায়দায়। মনোনয়নকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ-বিএনপিতে দীর্ঘদিন ধরেই অভ্যন্তরীণ কোন্দল রয়েছে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এ আসনে কে হবেন আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থী তা নিয়ে পাড়া-মহল্লায় চায়ের দোকানগুলোতে শুরু হয়েছে জল্পনা-কল্পনা। জমে উঠেছে এলাকায় প্রবীণ-নবীনদের মধ্যে মনোনয়ন লড়াই। গত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে এমপি নির্বাচিত হন কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সহসভাপতি ছবি বিশ্বাস। দলের দুই মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক এমপিকেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা মোশতাক আহমেদ রুহী এবং ওই আসনের সাবেক এমপি জালাল উদ্দিন তালুকদারের ছেলে জালাল তালুকদার হত্যার প্রতিবাদ পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা শাহ্ কুতুব উদ্দিন তালুকদার রুয়েল গত নির্বাচনেও প্রতিদ্ব›িদ্বতা করেন। ছবি বিশ্বাস এমপি হওয়ার পর গত সাড়ে তিন বছরে এলাকার উন্নয়ন হয়েছে ব্যাপক। কয়েকটি মেঘা প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। ছবি বিশ্বাস বলেন, নির্বাচিত হওয়ার পর এলাকার উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি। অনেক এলাকায় বিদ্যুতায়ন করা হয়েছে। সড়ক ও জনপথের অধীনে শ্যামগঞ্জ-বিরিশিরি সড়ক উন্নয়নে ৩১৬ কোটি টাকার দরপত্র আহŸান করা হয়েছে। ঠাকুরাকোনা-কলমাকান্দা সড়কে ঝুঁকিপূর্ণ সেতুসহ সড়ক প্রশস্তকরণ ও উন্নয়নে ২৫৬ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন হয়েছে।
আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যার্শী হয়ে কাজ করছেন সাবেক এমপি কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা, ময়মনসিংহ আনন্দমোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সাবেক ভিপি মোশতাক আহমেদ রুহী। নবম সংসদ নির্বাচনে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন। মোশতাক আহমেদ রুহী বলেন, এলাকার উন্নয়নে অনেক কাজ করেছি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করি। আশা করি আগামী দিনে দল আমাকে মনোনয়ন দেবে। কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা কলমাকান্দা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এরশাদুর রহমান মিন্টু দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় কাজ করে যাচ্ছেন। গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন। এরশাদুর রহমান মিন্টু বলেন, আমি মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান। রাজনীতি করতে গিয়ে অনেক অত্যাচার-নির্যাতনের শিকার হয়েছি। এমনকি আমাকে এলাকা ছেড়েও থাকতে হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা কলমাকান্দা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ মো. ফখরুল ইসলাম ফিরোজ দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে কাজ করছেন। গত নির্বাচনেও মনোয়ন চেয়েছিলেন। তিনি বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর সাধ্যমতো কাজ করে যাচ্ছি। এলাকায় দলের নাম ভাঙিয়ে অনেকে সন্ত্রাস ও মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে গড়া আওয়ামী লীগের একজন কর্মী আমি। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মাদকমুক্ত কলমাকান্দা গড়তে আমি এলাকায় থেকে সবাইকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করছি। এ আসনের সাবেক এমপি মরহুম জালাল উদ্দিন তালুকদারের মেয়ে দুর্গাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক সম্পাদিকা কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস ওরফে ঝুমা তালুকদার গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর হয়ে নৌকা প্রতীকের পক্ষে কাজ করেছেন। এবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্র্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে নির্বাচনী মাঠে কাজ করছেন। মরহুম বাবার রাজনৈতিক ইমেজকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করছেন। জান্নাতুল ফেরদৌস তালুকদার ঝুমা বলেন, ছাত্রজীবন থেকে রাজনীতি করছি। স্কুলজীবনে বিভিন্ন সভা-সমাবেশে বাবার সঙ্গে যেতাম। কাছে থেকে বাবাকে দেখেছি মানুষের সেবা করতে। তার আদর্শেই মানুষ হয়েছি। বাবার অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করতে চাই। আশা করি দল আমাকে মনোনয়ন দেবে। সাবেক এমপি মরহুম জালাল উদ্দিন তালুকদারের ছেলে জালাল তালুকদার হত্যার প্রতিবাদ পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা শাহ্ কুতুব উদ্দিন তালুকদার রুয়েলও মনোয়ন প্রত্যাশায় নির্বাচনী মাঠে কাজ করছেন। তিনি বলেন, এলাকার মানুষের জন্য কাজ করতে চাই। মনোনয়ন যে কেউ চাইতে পারে। দল যাকে ভালো মনে করবে তাকেই দেবে। ঢাকা কলেজের সাবেক ছাত্রনেতা শিল্পপতি রোটারিয়ান আতাউর রহমান আঁখিও মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে কাজ করছেন। তিনি বলেন, অবহেলিত এলাকার সাধারণ মানুষের ভাগ্যের উন্নয়নে কাজ করা আমার উদ্দেশ্য। রোটারিয়ান হওয়ার সুবাদে দেশের বিভিন্ন স্থানে আর্তমানবতার সেবায় কাজ করে থাকি। বিভিন্ন সময় নিজ এলাকায় কাজ করেছি। প্রাকৃতিক দুর্যোগে সাহায্য-সহযোগিতা করে থাকি। দলীয় মনোনয়ন পেয়ে এমপি নির্বাচিত হলে এলাকার উন্নয়নে কাজ করব। মনোনয়ন না পেলে দল যাকে মনোনয়ন দেবে তার পক্ষেই কাজ করে যাব। বঙ্গবন্ধু পরিষদ জাপান শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক ও নেত্রকোনা সরকারি কলেজের সাবেক এজিএস আশীষ রঞ্জন রায় ভানুও দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু আমার আদর্শ, শেখ হাসিনা আমার নেতা। প্রবাসে থেকেও দলের বিপদে-আপদে সব সময় কাজ করে যাচ্ছি। আগামী দিনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়েছি।
এ ছাড়া কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী পরিষদের সম্মানিত সদস্য উপাধ্যক্ষ রেমন্ড আরেং, দুর্গাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি দুর্গাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এমদাদুল হক খান, কলমাকান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মঞ্জুরুল হক তারা, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক কলমাকান্দা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল খালেক তালুকদার, দুর্গাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা সাজ্জাদুর রহমান সাজ্জাদ, আওয়ামী লীগ নেতা চ্যার্টার্ড অ্যাকাউনট্যান্ট আফতাব উদ্দিন, সাবেক জেলা যুবলীগ নেতা উসমান গণি, এমপি ছবি বিশ্বাসের ভগ্নিপতি প্রধানন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী মানু মজুমদার মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে কাজ করছেন।
এ আসনে বিএনপির হাফ ডজনের মতো মনোনয়ন প্রত্যাশী নির্বাচনী মাঠে কাজ করছেন। এর মধ্যে কেন্দ্রীয় বিএনপির আইনবিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল গত নবম সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেয়ে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করেছিলেন। এবারো তিনি মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে নির্বাচনী মাঠে কাজ করছেন। ব্যারিস্টার কায়সার কামাল বলেন, সহায়ক সরকার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশ গ্রহণ করবে। দল আমাকে মনোনয়ন দিলে আমি দৃঢ়ভাবে প্রত্যাশা করি এলাকার মানুষ আমাকে নির্বাচিত করবেন। আমি দলীয় নেতাকর্মীদের সুখে-দুঃখে সব সময় পাশে থেকে কাজ করছি। তাদেরকে আর্থিক, আইনগত সহায়তাসহ সব ধরনের সহযোগিতা করে যাচ্ছি। কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সহসধারণ সম্পাদক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রনেতা, ঢাকা কলেজের ছাত্র সংসদের সাবেক এজিএস অধ্যাপক সৈয়দ মাজহারুল হক সোহাগ গত নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন চেয়েছিলেন। এবারো তিনি দলীয় মনোনয়ন চাইবেন। তিনি বলেন, এলাকার উন্নয়ন ও রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তনের লক্ষ্যে কাজ করছি। আশা করি দলীয় হাইকমান্ড আমাকে মনোনয়ন দেবে। কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা, জেলা যুবদলের সাবেক সহসভাপতি, দুর্গাপুর উপজেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি সেলিম রেজা খান দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে নির্বাচনী মাঠে কাজ করছেন। জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি, নেত্রকোনা সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি, জেলা বিএনপি নেতা জাহাঙ্গীর আলম মাসুদ বলেন, দলের জন্য অনেক ত্যাগ করেছি। অনেক অত্যাচার-নির্যাতন সহ্য করতে হয়েছে। আমাকে মনোনয়ন দিলে অবহেলিত এলাকার উন্নয়নে কাজ করে যাব। এ ছাড়া বিএনপি থেকে মনোনয়ন চাইবেন জেলা বিএনপির সহসভাপতি, সাবেক এমপি, কলমাকান্দা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম রব্বানী, জেলা বিএনপির আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক দুর্গাপুর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি এডভোকেট ড. হামিদুর রহমান রাশেদ, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সহসভাপতি এজমল হোসেন পাইলট।
এ আসনটিতে এলডিপির প্রেসিডিয়াম সদস্য জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি জাতীয় সংসদের সাবেক হুইপ বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ এডভোকেট এম এ করিম আব্বাসী একজন হেভিওয়েট প্রার্থী। তিনি বলেন, এলাকার সাধারণ মানুষ চায় আমি আবার নির্বাচনে দাঁড়াই। তাদের কথা ফেলতে পারি না। তাই নির্বাচনে দাঁড়ানোর চিন্তা করছি। এখানে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে মাঠে রয়েছেন কেন্দ্রীয় ছাত্রসমাজ নেতা আনোয়ার হোসেন শান্ত।