বৈ শা খী সা জ স জ্জা

আগের সংবাদ

চার ক্যামেরা ও দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারির নতুন ফোন আনল হুয়াওয়ে

পরের সংবাদ

মাইক্রোসফটের বয়স এখন ৪৪ বছর

প্রকাশিত হয়েছে: এপ্রিল ৮, ২০১৮ , ৪:১৬ অপরাহ্ণ | আপডেট: এপ্রিল ৮, ২০১৮, ৪:১৬ অপরাহ্ণ

৪৪ বছরে পদার্পণ করেছে মাইক্রোসফট। ১৯৭৫ সালের ৪ এপ্রিল বিল গেটস ও পল অ্যালেনের হাত ধরে ক্ষুদ্র পরিসরে পথচলা শুরু প্রতিষ্ঠানটির। সে সময় গেটস ও অ্যালেনের বয়স ছিল যথাক্রমে ১৯ ও ২২ বছর। বর্তমানে প্রযুক্তি খাতের শীর্ষ সফটওয়্যার নির্মাতা কোম্পানি মাইক্রোসফট।
প্রতিষ্ঠার শুরুর দিকে প্রযুক্তি খাতে খুব একটা সাফল্য পায়নি মাইক্রোসফট। কিন্তু অদম্য কর্মস্পৃহা আর সৃজনশীল উদ্ভাবনের মাধ্যমে কয়েক বছরের মধ্যেই কম্পিউটার প্রযুক্তি খাতে সাফল্যের শিখরে পৌঁছে প্রতিষ্ঠানটি। বুদ্ধিদীপ্ত ও পরিশ্রমী বিল গেটস মাইক্রোসফটের কল্যাণে টানা কয়েকবার বিশ্বের শীর্ষ ধনী ব্যক্তির তকমাটি দখলে রেখেছিলেন। বর্তমানে ৬২ বছর বয়সী গেটসের মোট সম্পদের পরিমাণ ৯ হাজার ৩০ কোটি মার্কিন ডলার।
সর্বশেষ ২০১৪ সালে স্টিভ বলমার মাইক্রোসফটের প্রধান নির্বাহীর (সিইও) পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর পর ভারতীয় বংশদ্ভূত সত্য নাদেলার হাতে তৃতীয় ব্যক্তি হিসেবে সিইওর দায়িত্ব দেয়া হয়। একই সময় প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা ও প্রথম সিইও বিল গেটস মাইক্রোসফটের চেয়ারম্যান পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন এবং নিজের প্রতিষ্ঠিত দাতব্য প্রতিষ্ঠান বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে মানবকল্যাণ মূলক কাজে সময় ব্যয় করার ইচ্ছা পোষণ করেন। তবে সে সময় নাম উল্লেখ না করলেও মাইক্রোসফটের একটি গুরুত্বপূর্ণ পদে বহাল থাকার কথা জানিয়েছিলেন তিনি।
ডেস্কটপ কম্পিউটারকে কেন্দ্র করে আশি ও নব্বইয়ের দশকে মাইক্রোসফটের উত্থান ও প্রসার। বিগত এক দশকে বৈশ্বিক কম্পিউটার প্রযুক্তি বাজারের চিত্র আগের তুলনায় যথেষ্ট বদলে গেছে। প্রতিদ্ব›দ্বী প্রতিষ্ঠান, বিশেষ করে অ্যাপল ও স্যামসাংয়ের কল্যাণে প্রযুক্তি বাজারে এখন স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে। বর্তমান বাজারের গুরুত্ব অনুযায়ী, স¤প্রতি ডেস্কটপ ও ল্যাপটপ কম্পিউটারের পাশাপাশি স্মার্টফোন ও ট্যাবলেটের বাজারে ব্যবসা প্রসারে কাজ করে যাচ্ছে সংশ্লিষ্টরা। উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমকে ডেস্কটপ ও ল্যাপটপ কম্পিউটারের পাশাপাশি মোবাইল ডিভাইসে ব্যবহার উপযোগী করে তুলেছে মাইক্রোসফট। ব্যবসা নীতিতে এখন অধিক গুরুত্ব পাচ্ছে ক্লাউড কম্পিউটিং প্রযুক্তি খাত। মোবাইল হার্ডওয়্যার ব্যবসায় আধিপত্য বিস্তারের লক্ষ্যে ফিনল্যান্ডভিত্তিক সেলফোন নির্মাতা নকিয়ার মোবাইল বিভাগকে অধিগ্রহণ করেছে মাইক্রোসফট। এজন্য প্রতিষ্ঠানটিকে গুনতে হয় ৭২০ কোটি ডলার। যদিও এ অধিগ্রহণ প্রতিষ্ঠানটির লক্ষ্য বাস্তবায়নে খুব বেশি ভ‚মিকা রাখতে পারেনি। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে মাইক্রোসফট কর্মীদের উদ্দেশে প্রতি বছর একটি শুভেচ্ছাপত্র পাঠিয়ে থাকেন বিল গেটস। গেটস জানান, তিনি এবং পল অ্যালেন যখন প্রতিটি বাসা এবং ডেস্কে কম্পিউটার স্থাপনের লক্ষ্য নিয়ে কাজ শুরু করেছিলেন, তখন অনেকেই এ ধারণাকে অসম্ভব বলে মনে করেছিলেন। কিন্তু সব প্রতিক‚লতাকে ভুল প্রমাণ করে কম্পিউটার এখন সবার হাতের নাগালে পৌঁছেছে। এজন্য মাইক্রোসফটের ভ‚মিকা নিয়ে তিনি গর্বিত। মাইক্রোসফটের কল্যাণে কয়েকজন বিলিয়নেয়ার ও কয়েক হাজার মিলিয়নেয়ার কর্মী তৈরি হয়েছে।

  • আরও পড়ুন
  • লেখকের অন্যান্য লেখা