তালেবানদের সমর্থন-সহায়তা দিচ্ছে রাশিয়া: ওয়াশিংটন

আগের সংবাদ

ইউটিউব পেইড চ্যানেল সেবা বন্ধ হচ্ছে

পরের সংবাদ

আবিষ্কার হলো আলোকে শব্দ তরঙ্গে রূপান্তরের মাইক্রোচিপ

প্রকাশিত হয়েছে: মার্চ ২৪, ২০১৮ , ৪:৫৯ অপরাহ্ণ | আপডেট: মার্চ ২৪, ২০১৮, ৪:৫৯ অপরাহ্ণ

সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক দল গবেষক এমন একটি মাইক্রোচিপ তৈরি করেছেন যা আলোর তরঙ্গকে শব্দ তরঙ্গে রূপান্তর করতে সক্ষম। মাইক্রোচিপটি আলো হিসেবে সঞ্চিত তথ্য ধীরে ধীরে এবং আরও কার্যকরীভাবে দ্রুত প্রসেস করতে সক্ষম।

সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক দলটি তাদের গবেষণা জার্নালটি ‘নেচার কমিনিউকেশনে’ প্রকাশ করেছেন। এই দলে আছেন মরিসত মারক্লিন ও ডক্টর ব্রিজিট স্টিলার।

দূর থেকে কোনো তথ‍্য আদান-প্রদানের ক্ষেত্রে আলো তরঙ্গ বেশ সহায়ক ভূমিকা পালন করে। কিন্তু এর একটি দুর্বল দিক হলো শব্দ তরঙ্গের তুলনায় এর গতি কম। ফলে এটি কম্পিউটার ও টেলিযোগাযোগ সিস্টেমের জন্য সংরক্ষিত তথ্য প্রসেস করাকে কঠিন করে তোলে।

এ কারণে শব্দ তরঙ্গ অথবা আলো থেকে পরিণত শব্দ তরঙ্গে তথ‍্য চলাচলের কাজ দ্রুত হয়। গবেষকদের মাইক্রোচিপটি আলো তরঙ্গ থেকে তথ‍্য পাঠাতে যে সময় প্রয়োজন হয় সে সময়ের চেয়ে কম সময়ে শব্দ তরঙ্গতে রূপান্তরিত করে। যা আলো তরঙ্গ থেকে বহুগুণ দ্রুত কাজ করে।

গবেষকদের মতে, বর্তমান সময়ের ল্যাপটপগুলোর চেয়ে আলোর তরঙ্গ ভিত্তিক বা ফোটোনিক কম্পিউটারগুলো ২০ গুণ বেশি দ্রুত গতিতে চলতে পারবে।

ডক্টর ব্রিজিট স্টিলার বলেন, শব্দ তরঙ্গ রূপান্তরের মাইক্রোচিপটি আলোর তুলনায় ৫ গুণ দ্রুত কাজ করে। এছাড়া এটি আলো তরঙ্গের মতো অধিক তাপ উৎপাদন করে না।

সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে কম্পিউটার প্রযুক্তিও দ্রুত উন্নত হচ্ছে। তবে ডিভাইসগুলো তাপ নিয়ন্ত্রণ করা নিয়ে ঝামেলা পোহাতে হয়। শব্দ তরঙ্গ ব‍্যবহার করলে তাপ বিষয়ক সমস্যা থেকে অনেকটা সমাধান পাওয়া যাবে বলে বিশ্লেষকদের ধারণা। গবেষক দলের মাইক্রোচিপটির উন্নয়ন ঘটানোর জন্য আরও গবেষণা চালানো হচ্ছে।