ঘরে বসেই ছেলেদের ত্বকের যত্ন

আগের সংবাদ

মামলার জালে সেনা কর্মকর্তার গাড়িচালকসহ ৮ জন

পরের সংবাদ

হাসপাতালে অজগরটি নিয়ে যা হচ্ছে

প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৭ , ১:৩৬ অপরাহ্ণ | আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৭, ১:৩৬ অপরাহ্ণ

ইমরান রহমান

ইমরান রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকা থেকে

ভারতের উড়িষ্যায় একটি হাসপাতালে মারাত্মক আহত এক অজগরের সিটি স্ক্যান করা হয়েছে। রোববার ভুবনেশ্বরের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে ৮ ফুট দীর্ঘ ওই বার্মিজ পাইথনের সিটি স্ক্যান সম্পন্ন হয়। এর মাধ্যমে ভারতে প্রথমবারের মতো কোন আহত সাপকে হাসপাতালের চিকিৎসা সুবিধা দেয়া হল।

দেশটির সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি’র খবরে জানা যায়, গত ৪ দিন আগে কিওনঝার জেলার আনন্দপুর থেকে আহত অবস্থায় সাপটিকে উদ্ধার করা হয়। জায়গাটি ভুবনেশ্বর থেকে ১৩০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। বনবিভাগ অজগরটিকে উদ্ধার করে ‘স্নেক হেল্পলাইন’ নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের কাছে হস্তান্তর করে। এই সংগঠনটির ৬০ জন স্বেচ্ছাসেবক উড়িষ্যায় সাপদের স্বাস্থ্যের খেয়াল রাখে, পাশাপাশি সাপ উদ্ধারেও সহায়তা করে।

এনডিটিভি জানায়, গত শুক্রবার মারাত্মক আহত অবস্থায় অজগরটিকে উদ্ধার করে উড়িষ্যার কৃষি ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়ে আসেন আনন্দপুরের ফরেস্ট র‌্যাঞ্জ অফিসার মিহির পাতনায়েক। এক্স-রে রিপোর্টে অবশ্য আসল সমস্যাটা প্রথমে ধরা পড়েনি। তাই স্নেক হেল্পলাইন সাপের অসুস্থতার কারণ জানতে সিটি স্ক্যানের সিদ্ধান্ত নেয়।

কিন্তু সরকারি হাসপাতালে অজগরের সিটি স্ক্যান করা কঠিন ছিল। সিটি স্ক্যান করার জন্য সাপটিকে তাই ভুবনেশ্বরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেয়া হয়। সিটি স্ক্যানের সময় আশঙ্কা ছিল, সাপটি যদি যন্ত্রের ভেতরে গিয়ে মাথা নড়াচড়া করে! তাহলে সঠিক রিপোর্ট পাওয়া যাবে না। তাই সাপটির মাথা টেপ দিয়ে আটকে রাখা হয়।

স্নেক হেল্পলাইনের মুখপাত্র শুভেন্দু মল্লিক জানান, রিপোর্টে দেখা গেছে অজগরটি বেশ কয়েকটি স্থানে আঘাত পেয়েছে। এমনকি মাথাতেও মারাত্মক আঘাত পেয়েছে সাপটি।

এনডিটিভি জানায়, সিটি স্ক্যানের রিপোর্ট বিশ্বের বেশ কয়েকজন বিখ্যাত চিকিৎসকের কাছে পাঠানো হয়েছে। যাতে তাদের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা দেওয়া যায়।